আর্কাইভ

বিসিসির বর্ধিত ওয়ার্ডে উন্নয়নের চেষ্টায় কাউন্সিলর ফরিদ

আহমেদ জালাল, বরিশাল ॥ বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের বর্ধিত এলাকা ২৯ নং ওয়ার্ড। সিটি কর্পোরেশনের আওতায় আসার আগে সেখানে উন্নয়নের তেমন কোন ছোয়া লাগে নি। বিশেষ করে সেখানকার কাউন্সিলর ফরিদ আহমেদ নির্বাচিত হওয়ার পর এলাকার চেহারা পাল্টাতে থাকে। বৈদু্যুতিক সংযোগ,রাস্তাঘাট নির্মান,ড্রেনেজ ব্যবস্থাসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ অব্যাহত রয়েছে। নিজের ওয়ার্ডের উন্নয়নে আপ্রান চেষ্টা চালিয়ে আসছেন কাউন্সিলর ফরিদ আহমেদ। বরিশালের গুরুত্বপূর্ন প্রতিষ্ঠানগুলো রয়েছে উনত্রিশ নং ওয়ার্ডে।

উলেখ্যযোগ্য প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়, ইউসেফ বাংলাদেশ, ডিআইজি অফিস,ইমাম প্রশিক্ষন কেন্দ্র,আনসার ভিডিভি কার্যালয়, প্রতিবন্ধী স্কুল,সমবায় ইনস্টিটিউট, কাশিপুর স্কুল এন্ড কলেজ, শিক্ষা বোর্ড ও বন বিভাগ। ১৯৭৯ সালে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন ফরিদ আহমেদ। বর্তমান এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবির নানকের সঙ্গে বরিশালে একত্রে ছাত্রলীগের রাজনীতি করেছেন। সেই থেকে ছাত্রলীগের মূল ধারার সংগঠন আওয়ামীলীগের রাজনীতি করে চলছেন। স্থানীয়রা জানান,এলাকার দল মত নির্বিশেষের সকল শ্রেনী পেশার মানুষের আস্তাভাজন ফরিদ আহমেদ। তিনি প্রতিহিংসার রাজনীতি পছন্দ করেন না। রাজনীতি করেন সংগঠনকে গতিশীল ও মানুষের সেবার জন্য। অর্থনৈতিক ফায়দা লোটার রাজনীতিও তিনি পছন্দ করেন না। এলাকার কোন সমস্যকে ঝুলিয়ে না রেখে সহসাই মিটিয়ে দিতে সর্বদা তৎপর থাকেন।  কাউন্সিলর ফরিদ আহমেদ জানান, তার ওয়ার্ডে বেশ কয়েক কোটি টাকার উন্নয়নমূলক কাজ হয়েছে। প্রক্রিয়াধীন রয়েছে আরো ২কোটি টাকার অধিক কাজ।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »