আর্কাইভ

সঙ্গী ত্যাগ করে মাদক বিক্রিতে সক্রিয় হওয়ায় ছাত্রলীগ ক্যাডারকে কুপিয়ে জখম

বিশেষ প্রতিনিধিঃ ক্রমশই মারমুখি ভূমিকায় অবস্থান করছে নগরীর হাসপাতাল রোডের ফেন্সিডিল বাহিনী। নগরীর বেশ কিছু এলাকার ফেন্সিডিল বাহিনী এখানে মাদকএসে জোট বেঁধেছে। গতকাল রাতে মাদক বিক্রিকে কেন্দ্র করে এরইমধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে। কাউনিয়া মনসা বাড়ি এলাকার মাদক ব্যবসায়ী রিমনকে কুপিয়ে আহত করা হয় রাত ১২টার দিকে।

জানা গেছে, মহানগর ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক ওয়াসিম দেওয়ান এর সংগ ত্যাগ করে মাদক বিক্রিতে জড়িত হওয়ায় রিমনকে কুপিয়ে আহত করা হয়। আহত রিমন জানায়, তাকে মান্না, ডালিম, মার্জু ও সবুজ কুপিয়ে আহত করেছে। অনুসন্ধানে জানা গেছে, কিছুদিন পূর্বে রিমন ঝাউতলা এলাকার ষ্টীল পলাশকে মারধর করে। সুবির এর মাদক বিক্রির পাওনা টাকা চাইতে গেলে মারামারির এ সূত্রপাত ঘটে। এদিকে ইয়াবা সেবী ও ব্যবসায়ী তপনের নেতৃত্বে হাসপাতাল রোড এলাকা এখন মাদক ব্যবসায়ীদের আড্ডা স্থলে পরিণত হয়েছে। কোতয়ালী পুলিশের নাকের ডগায় বসে মাদক ব্যবসার এ ঘটনা এখন নিত্যদিনের ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে।
নাম ভাঙ্গানো হচ্ছে মেয়র শওকত হোসেন হিরনের। তপন নিজেকে মেয়র হিরনের আত্মীয় পরিচয় দিয়ে হাসপাতাল রোড এলাকায় এহেন অপকর্ম সাধন করে যাচ্ছে। যে কারনে কেউ তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে সাহস পাচ্ছেনা। নগরীর হাসপাতাল রোড এলাকার ল’কলেজের অভ্যন্তরে বাবু ওরফে আম বাবুর বাসায় তার আবাসস্থল। তার এই ফেন্সি বাহিনীর অন্যন্য সদস্যরা হচ্ছেন ভাটিখানা এলাকার ডালাস নাসির, কাউনিয়া এলাকার গ্রেজ আনোয়ার, আলেকান্দা এলাকার তমাল, ঝাউতলা এলাকার পলাশ ওরফে স্টীল পলাশ, অংকন ডেকরেটরের সুবিড় ওরফে চাপা সুবিড় ও বিমল সহ একাধিক চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »