আর্কাইভ

কুয়াকাটায় হিন্দু সম্প্রদায়ের রাস মেলা সমাপ্ত

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ কুয়াকাটায় গঙ্গাস্নান ও কলাপাড়ায় শ্রী শ্রী মদন মোহন সেবাশ্রম আঙ্গীনায় হিন্দু সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যবাহী শ্রী শ্রী কৃষ্ণের রাসলীলা উৎসব ও মেলা গতকাল রোববার সমাপ্ত হয়েছে।এ উৎসবকে ঘিরে কলাপাড়া সাজে ছিলো নতুন রূপে। মেলায় আগত পূন্যার্থী ও দর্শণার্থীদের পদ ভারে সেবাশ্রম আঙ্গীনা মুখরিত হয়ে উঠে।

হিন্দু,বৌদ্ধ,খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের কলাপাড়া উপজেলা শাখার সভাপতি প্রভাষক ভূপেন্দ্র নাথ বিশ্বাস জানান, শতাব্দীকাল ধরে চলে আসছে এখানে এ রাসলীলা ও মেলা উৎসব। হিন্দু সম্প্রদায়ের দুঃখ ,দুর্দশা, হিংসা, হানা-হানি দেখে দুস্টের দমন শিস্টের পালনের জন্য স্বয়ং ভগবান শ্রী কৃষ্ণ নাম ধারন করে এ পৃথিবীতে অবর্তীর্ন হন।ওই যুগে ভগবান শ্রী কৃষ্ণ নিস্কাম প্রেমের নিদর্শন রেখে যান এবং তিনি যে সর্বভূতে বিরাজ করেন তারই স্বাক্ষী রেখে যান পূর্নিমা রাতে এ রাস লীলার মাধ্যমে। দ্বাপর যুগে এ লীলা তিনি প্রকাশ করেছিলেন ভারতবর্ষের শ্রী বৃন্দাবনে।ওইসময় পূর্নিমা রাতে বৃন্দাবনে গোকুলধামে লীলা কালে তার লীলা সঙ্গিণী সহ ১৬ জন সখীকে নিয়ে মিলনাত্মক লীলা করেন। সেই থেকে এ নিস্কাম প্রেমের নিদর্শন স্বরূপ এবং পৃথিবীতে এর পূনরাবৃত্তির মানসে হিন্দু সম্প্রদায়ের নর-নারীরা এ পূর্নিমা রাত থেকে রাস লীলা উৎসব উদযাপন করে আসছে।পূন্যার্থীরা সাগরের নীল জলে স্নান শেষে কলাপাড়া পৌর শহরে অবস্থিত শ্রী শ্রী মদন মোহন সেবাশ্রমে ধর্মীয় উৎসবে মিলিত হয়।এ লক্ষ্যে শ্রী শ্রী মদন মোহন সেবাশ্রমে পরিচালনা কমিটি ৫দিনের মেলার আযোজন করে।কলাপাড়া ও পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটায় হিন্দু সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ রাস পূর্নিমা উৎসবকে ঘিরে সেজেছে অপরূপ সাজে। যুগ যুগ ধরে পালিত হয় এ রাস পূর্নিমা। তবে এ উৎসবটি পরিনত হয় সার্বজনীন উৎসবে। এ উপলক্ষে সাগর পাড়ে হিন্দু, মুসলমান, বৌদ্ধ, খৃষ্টান সহ বিভিন্ন ধর্মালম্বী মানুষদের মহামিলন মেলায় পরিনত হয়।

উপজেলা প্রশাসনের সূত্রে জানা গেছে, কুয়াকাটায় গঙ্গা স্নান ও কলাপাড়ায় ৫দিন ব্যাপী রাস লীলা উৎসব সুষ্ঠু ভাবে পালন ও আইন শৃংখলা রক্ষার্থে কলাপাড়া থানার ভারপ্রপ্ত কর্মকর্তার নেতৃত্বে র‌্যাব সহ এস এ এফ ফোর্সের বিশেষ বাহিনী মোতায়ন করা হয়েছিল।

রাস উৎযাপন কমিটির আহবায়ক সুখরঞ্জন তালুকদার জানান, প্রতি বছরের মত এবারও যথাযথ ধর্মীয় ভাবগম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে ৫ দিন ব্যাপী কলাপাড়া শ্রী শ্রী মদনমোহন সেবাশ্রমে রাসপূজা উৎসব ও মেলায় বিভিন্ন স্থান থেকে আগত দোকানীদের হরেক রকম মালামাল পশরা সাজিয়ে বসেছে। মেলায় সাখারিদের দোকানে হিন্দু সম্প্রদায়ের নারীরে সবচেয়ে ভীর লক্ষ করা গেছে। তিনি জানান, গত বছরের চেয়ে এ বছর মেলায় বেশ লোকজনের সমাগম ঘটেছে। সুন্দর সু-শৃংখল ভাবে রাস উৎসব ও মেলা পলনের লক্ষে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে।

এ ব্যাপারে কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দিদারে আলম মোহাম্মদ মাকসুদ চৌধুরী জানান, কুয়াকাটায় গঙ্গা স্নান ও কলাপাড়ায় রাস লীলা উৎসব উপলক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আইন-শৃংখলা রক্ষায় বিভিন্ন পয়েন্টে পুলিশের টহল জোরদার করা হয়ে ছিল।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »