আর্কাইভ

কাঠালিয়ায় সরকার দলীয় ক্যাডারদের ধাওয়া ও হুমকীতে টেন্ডার প্রক্রিয়া স্থগিত

আহমেদ আবু জাফর, ঝালকাঠি ॥ কাঠালিয়ায় ত্রান ও পূনর্বাসন প্রকল্পের প্রায় ২০ লাখ টাকার ব্রীজ কালভার্ট নির্মানের টেন্ডার প্রক্রিয়া সরকার দলীয় ক্যাডারদের ধাওয়া ও হুমকীতে স্থগিত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে কাঠালিয়া সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ফারুক সিকদারের ছোট ভাই সদর ইউপি চেয়ারম্যান কিবরিয়া সিকদার ও আওয়ামী লীগের কিছু নেতা-কর্মী এমপি বিএইচ হারুনের সমর্থকরা ইউএনও অফিসে ঢুকে ঠিকাদারদেরকে উদ্দেশ্য করে গালাগাল শুরু করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এক পর্যায়ে বিকেলে কাঠালিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা টেন্ডার প্রক্রিয়া স্থগিত ঘোষনা করেন।

স্থানীয় সাধারন ঠিকাদাররা জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার ত্রান ও পূনর্বাসন প্রকল্পের ১৯ লাখ ৯৬ হাজার টাকা মূল্যের ব্রীজ কালভার্ট নির্মানের দরপত্র জমাদানের শেষ দিনে সরকার দলীয় এমপি বিএইচ হারুনের নির্দেশে নেতাকর্মীরা উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে জড়ো হতে থাকে। সাধারন ঠিকাদাররা দরপত্র জাম দিতে গেলে স্থানীয় ক্ষমতাসীন দলের  নেতা-কর্মিরা তাদের বাঁধা দেয়। এ সময় সেখানে টেন্ডারে অংশ নেয়া সাধারন ঠিকাদারদের ধাওয়া ও হুমকী দিয়ে অফিস থেকে বের করে দেয়ার চেষ্টা করা হলে তারা এর প্রতিবাদ করলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত  হয়। পরে স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব বিএইচ হারুনের নাম ভাংগিয়ে দাখিলকৃত দরপত্র লটারী না করে দলীয় ঠিকাদারদের নামে দেয়ার জন্য পিআইওকে চাঁপ প্রয়োগ করে। কিন্তু নির্বাহী কর্মকর্তা লটারীর দাবীতে অনড় থাকেন। তিনি সাধারন ঠিকাদারদের অনুপস্থিতিতে দরপত্রের প্রক্রিয়া খুলতে অনীহা প্রকাশ করেন।

কাঠালিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদুর রহমান ভুইয়া সাংবাদিকদের জানান, দরপত্র আহবানের জমা ও খোলার শেষ দিনে লটারীর প্রস্তুতিকালে স্থানীয় প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতারা অফিসে ডুকে গিয়ে লটারী স্থগিত করে কাজ তাদের লাইসেন্সের নামে বরাদ্ধের দাবী তোলে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »