আর্কাইভ

দক্ষিণাঞ্চলের সকল সড়ক সংস্কারের দাবিতে ঢাকা-বরিশাল রুটের সকল যানবাহন চলাচল অনিদৃষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষনা

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ দক্ষিণাঞ্চলের সকল সড়ক সংস্কারের দাবিতে মঙ্গলবার থেকে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়ক সহ সকল রুটে মালিক সমিতির বাস ও মাইক্রোবাস চলাচল অনিদৃষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষনা করা হয়েছে। সাথে মালবাহী ট্রাক চলাচলও বন্ধ থাকবে। গতকাল সোমবার রাত দশটায় জরুরি সভা শেষে বাস মালিক সমিতি ও ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দরা এ ঘোষনা দিয়েছেন। আকস্কিক ভাবে বাস-ট্রাক ধর্মঘটের ঘোষনায় মহাবিপাকে পরবে এ রুটে চলাচলকারী হাজার-হাজার যাত্রীরা। তবে যাত্রীদের ভোগান্তি কিছুটা দূর করতে বিশেষ সাভির্সে বিআরটিসি বাস চলাচল করবে বলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ আশ্বাস দিয়েছেন।

সূত্র মতে, সারা দেশের ন্যায় বরিশালসহ গোটা দক্ষিণাঞ্চলের সকল মহাসড়ক ও সড়কগুলো যান চলাচল প্রায় অযোগ্য হয়ে পরেছে। দীর্ঘদিন থেকে সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের কাছে এ অঞ্চলের বাস-ট্রাক মালিক, চালক ও শ্রমিকেরা অযোগ্য সড়কগুলো মেরামতের দাবি জানিয়ে আসছেন। কিন্তু তাদের এ দাবি পূরন না হওয়ায় অসহনীয় দূর্ভোগের মধ্যেই এ ভাঙ্গাচোড়া মহাসড়ক দিয়েই যানচলাচল করে আসছে। এতে একদিকে সড়ক দূর্ঘটনার ঝুঁকি অন্যদিকে যাত্রীদের দূভোর্গ এবং বাস মালিকরা প্রচুর ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন। তাই সড়ক সংস্কার বা মেরামত ও পূর্ননিমার্নের দাবিতে এ অঞ্চলের বাস ও ট্রাক মালিক-শ্রমিকেরা একতিত্ব হয়েছে দাবি আদায়ের আন্দোলনের জন্য।
তারই ধারাবাহিকতায় চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে নথুল্লাবাদ কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে জেলা বাস মালিক সমিতি, বিভাগীয় ট্রাক মালিক সমিতি, সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন ও বিভাগীয় ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়ন এক যৌথ সভা করেন। ওই সভায় বরিশালের মহাসড়ক ও আঞ্চলিক সড়ক সংস্কারের দাবিতে গত ১৩ ডিসেম্বর নথুল্লাবাদ কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে মানববন্ধন করেন। শেষে যোগাযোগ মন্ত্রাণালয়সহ সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরে স্মারকলিপি পেশ করা হয়। স্মারকলিপিতে এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষের ৭ দিনের মধ্যে উদ্যোগ গ্রহনের হুমকি দেয়া হয়েছিলো। কিন্তু ওই ৭ দিনে উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষের কোন আশ্বাস না পেয়ে গতকাল সোমবার রাত দশটায় জরুরি সভা করা হয়। সভা শেষে আজ মঙ্গলবার থেকে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়ক রুটের সকল মালিক সমিতির বাস ও মাইক্রোবাস চলাচল অনিদৃষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষনা করা হয়েছে। সাথে মালবাহী ট্রাক চলাচলও বন্ধ থাকবে।

বাস মালিক সমিতির সভাপতি মোঃ আলমগীর হোসেন জানান, সড়ক সংস্কারের দাবিতে আজ মঙ্গলবার ভোর ৬ টা থেকে এ ধর্মঘট শুরু হবে। ঢাকা-বরিশাল রুট ছাড়াও অভান্তরীন প্রায় ৮/১০টি রুটে বাস চলাচল বন্ধ থাকবে অনিদৃষ্টকালের জন্য। পাশাপাশি বিভাগীয় ট্রাক মালিক সমিতি ও মাইক্রোবাস মালিক সমিতি এ আন্দোলনের সাথে একাত্বতা প্রকাশ করায় ট্রাক ও মাইক্রোবাস চলাচলও বন্ধ থাকবে। তিনি আরো বলেন, ঢাকা থেকে বরিশালের উদ্দেশ্যে কোন বাস ছেড়ে আসবে না। আর যে বাসটি আসবে সে বাসটিকে আর যেতে দেয়া হবে না। সড়ক সংস্কারের বিষয়টি পুরোপুরি ভাবে সরকার গ্রহন না করলে এ আন্দোলন অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। তবে যাত্রীদের ভোগান্তি কিছুটা দূর করতে বিশেষ সাভির্সে বিআরটিসি বাস চলাচল করবে বলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ আশ্বাস দিয়েছেন। কিন্তু বিআরটিসি বাস বরিশাল থেকে সরাসরি রাজধানী ঢাকায় চলাচল করে না। যেকটি বাস আছে সেগুলো মাওয়া পর্যন্ত চলাচল করে থাকে।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »