আর্কাইভ

৪২ জন যুবককে চাকুরির প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারনার মাধ্যমে ১৫ লাখ টাকা নিয়ে পালিয়েছে প্রতারক

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ চাকরি পাওয়ার আশায় বরিশালে প্রতারনার শিকার হয়েছে ৪২ জন যুবক। তাদের দেয়া ১৪ লাখ ৭০ হাজার টাকা নিয়ে মঙ্গলবার গভীর রাতে পালিয়ে গেছে প্রতারক কথিত সার ডিলার যশোরের বাসিন্দা টিটু রহমান ওরফে রায়হান ও তার সহযোগী মোহাম্মদ আলী। এ ঘটনায় গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় কোতয়ালী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন প্রতারনার শিকার জনৈক মতিউর রহমান।

প্রতারনার স্বীকার যুবকেরা জানান, গত নবেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে সার বিক্রয় কেন্দ্রের কথা বলে নগরীর দক্ষিণ আলেকান্দা ১নং পুল সিএন্ডবি সংলগ্ন ‘স্মরনিকা এন্টারপ্রাইজ’ নামের একটি প্রতিষ্ঠান চালু করে যশোর জেলার মালতা গ্রামের বাসিন্দা টিটু রহমান ওরফে রায়হান ও মোহাম্মদ আলী নামের দু’জন। প্রতিষ্ঠানটির মার্কেটিং ম্যানেজার হিসেবে চাকুরি দেয়া হয় সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামরুন্নাহার রোজীর ভাসুর ছেলে মতিউর রহমানকে। কয়েকদিন পূর্বে স্থানীয় একাধিক পত্রিকায় ওই প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন পদে লোক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়। সে অনুযায়ী ৪২ জন যুবক বিভিন্ন অংকের জামানত দিয়ে চাকুরি নেয়। মাসের প্রথম দিকে চাকরিতে যোগ দেয়ার পরপরই মটরসাইকেল দেয়ার কথা বলে মটরসাইকেলের কাগজপত্র ও লাইসেন্সবাবদ প্রত্যেকের কাছ থেকে ২৫ হাজার টাকা করে হাতিয়ে নেয় প্রতারক টিটু রহমান ওরফে রায়হান।

প্রতারনার শিকার আজিজুর রহমান আকন জানান, মঙ্গলবার বিকেলে মোহাম্মদ আলীর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। এরপর টিটু রহমানের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে সেটাও বন্ধ পাওয়া যায়। বিষয়টি সন্ধেহজনক হলে আমরা সবাই গতকাল বুধবার সকালে স্মরনিকা এন্টারপ্রাইজে গিয়ে দেখি সেখানে তালা ঝুলানো। ভিতরে একটি টেবিল ও কয়েকটি চেয়ার ছাড়া কোন আসবাবপত্রই নেই। আমাদের চাকুরীর আবেদন পত্রগুলো মেঝেতে ছড়িয়ে আছে। পরে আমরা মার্কেটিং ম্যানেজার মতিউর রহমানকে ধরে থানায় নিয়ে আসি।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কোতয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মোঃ শাহিদুজ্জামান জানান, মার্কেটিং ম্যানেজার মতিউর রহমানও ২০ হাজার টাকা জামানত দিয়ে চাকরি নিয়েছিলো। সেও প্রতারিত হয়েছে। তাই মতিউর রহমান নিজেই বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। টিটু রহমান ওরফে রায়হান কৌশল অবলম্বন করে ৪২ জন যুবকদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়ে পালিয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

আরও দেখুন...
Close
Back to top button
Translate »