আর্কাইভ

একান্ত সাক্ষাতকারে যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের – গৌরনদী থেকে বরিশাল পর্যন্ত মহাসড়কের সংস্কার কাজ দ্রুত সম্পন্ন করতে সড়ক বিভাগকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে

গৌরনদী ডটকম ॥ অনলাইন গৌরনদী ডট কম’র সাথে সোমবার রাতে মোবাইল ফোনে একান্ত সাক্ষাতকারে মিলিত হয়েছেন বর্তমান সরকারের চ্যালেঞ্জিং যোগাযোগ মন্ত্রনালয়ের সদ্য যোগদানকারী মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।ওবায়দুল কাদের

সাক্ষাতকারের প্রথমেই তিনি বলেন, চ্যালেঞ্জ নয়। সঠিক দায়িত্ব পালন করতেই প্রধানমন্ত্রী আমাকে যোগাযোগ মন্ত্রনালয়ের গুরুতপূর্ণ দায়িত্ব দিয়েছেন। কথায় নয় কাজের মাধ্যমেই সেই দায়িত্ব পালন করে দেখাতে চাই। মন্ত্রী আরো বলেন, দক্ষিণাঞ্চলের সাথে সড়ক পথে যোগাযোগের একমাত্র ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের গৌরনদী উপজেলার ভুরঘাটা থেকে বরিশাল নতুল্লাবাদ কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনাল পর্যন্ত খানাখন্দে ভরা মহাসড়কের সংস্কার কাজ দ্রুত ভাবে সম্পন্ন করার জন্য সড়ক ও জনপথ বিভাগকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। নির্দেশ মোতাবেক কাজ না হলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আরেক প্রশ্নের জবাবে যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, দক্ষিণাঞ্চলরবাসীর প্রাণের দাবি পদ্মা সেতুর নির্মান কাজ বর্তমান সরকারের সময়েই শুরু করা হবে। সে লক্ষে ইতোমধ্যে সকল দাতা প্রতিষ্ঠানের সাথে যোগাযোগ সম্পন্ন করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, একটি রাজনৈতিক মহল চাচ্ছেন বর্তমান সরকার যাতে করে পদ্মা সেতুর নির্মান কাজ শুরু করতে না পারেন। যার প্রেক্ষিতে ওই মহলটি দাতা সংস্থাগুলোকে বিভিন্ন সময় ভুল বুঝানোর চেষ্ঠায় লিপ্ত রয়েছেন। শীঘ্রই ওইসব রাজনৈতিক ব্যক্তিদের মুখোশ জনগনের সামনে উন্মোচন করে দেয়া হবে।

সূত্রমতে, যোগাযোগমন্ত্রীর নির্দেশ পেয়ে গতকাল সোমবার বিকেল থেকেই বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের খানাখন্দে ভরা বরিশাল নতুল্লাবাদ বাসটার্মিনাল থেকে গৌরনদীর ভুরঘাটা বাসষ্ট্যান্ড পর্যন্ত মহাসড়কের সংস্কার কাজের জন্য সড়ক ও জনপথ বিভাগের শ্রমিকেরা মাঠে নেমেছেন। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগীরা আগামি এক সপ্তাহের মধ্যে সংস্কার কাজের অগ্রগতি দেখতে পাবে।

উল্লেখ্য, ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের গৌরনদীর ভুরঘাটা থেকে বরিশাল কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনাল পর্যন্ত মহাসড়কে দীর্ঘদিন থেকে যানচলাচলে অনুপযোগী হয়ে পরেছে। খানাখন্দে ভরা এ মহাসড়কটি দ্রুতভাবে সংস্কারের জন্য ইতোমধ্যে দক্ষিণাঞ্চলের ২২টি রুটে বাস, ট্রাক, মাইক্রোবাস মালিক ও শ্রমিকেরা ব্যাপক কর্মসূচী পালনের পাশাপাশি অনিদৃষ্টকালের জন্য যানবাহন চলাচল বন্ধের কর্মসূচীও ঘোষনা করেছিলেন। ওইসময় জেলা প্রশাসকের আশ্বাসে মালিক ও শ্রমিকেরা তাদের কর্মসূচী প্রত্যাহার করে নেয়। তার পরেও ঢিমেতালে চলছিলো সংস্কার কাজ। গতকাল সোমবার দুপুরে যোগাযোগমন্ত্রীর নির্দেশ পেয়ে সড়ক ও জনপথ বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা শ্রমিক নিয়ে জরুরি ভিত্তিতে সড়ক সংস্কারের জন্য কাজ শুরু করেছেন।

সাক্ষাতকারটি নিয়েছেন : খোকন আহম্মেদ হীরা, সম্পাদক, গৌরনদী ডটকম

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »