আর্কাইভ

কেরানী কুদ্দুস তালুকদারের স্বপ্ন এখন উড়োজাহাজ কেনা!

উম্মে রুমান, বরিশাল ॥ বরিশাল জেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসের হিসাব রক্ষক কুদ্দুস তালুকদার এখন দুটি কার্গো জাহাজের মালিক। অভিযোগ উঠেছে সদ্য লোক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় নিয়োগ বানিজ্যে অর্থ দিয়ে তিনি এ কাগো ক্রয় করেছেন। সব মিলিয়ে তিনি এখন বরিশালের একজন অন্যতম বৃত্তবান মানুষ। তাই নগরবাসীর প্রশ্ন একজন কেরানী হয়ে কিভাবে এতো অর্থ বিত্তের মালিক হলেন কুদ্দুস?

অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, ১৯৮৮ সালে কুদ্দুস তালুকদার ও তার স্ত্রী মরিয়ম বেগমের বাকেরগঞ্জ বদলী হয়ে মাত্র দুই শত টাকা আর একটি ভাঙ্গা কেরশিনের চুলা নিয়ে বরিশালে প্রবেশ করেন। থাকার জন্য ভাড়া করেন ছোট একটি ঘর, মাত্র দুই যুগে তিনি এখন কোথায় পৌছে গেছেন। সরকারী চাকুরীজীবি প্রথম শ্রেনী গেজেট অফিসারাও তার মতো একজন কেরানির কাছে হার মানতে বাধ্য হবে, কেননা তার রয়েছে গাড়ি, বাড়ী, আর সর্বশেষ দুটি কর্গো জাহাজ। সম্ভবত তার এখন স্বপ্ন একটি উরোজাহাজ ক্রয় করা! এমনভাবে ঘুষের মহা উৎসবে তিনি মেতে থাকলে এ স্বপ্নটিও বাস্তবায়ন হওয়া ১০০ ভাগ সম্ভব বলে অনেকই মন্তব্য।

কুদ্দুস তালুকদারের এ সকল কর্মকান্ডের জন্য আগে পরে কেউই প্রতিবাদ করেননি। কিন্তু বরিশাল প্রতিদিন পত্রিকায় তার কর্মকান্ড নিয়ে অনুসন্ধানী রিপোট গত সপ্তাহে ধারাবাহিক প্রকাশ করা হয়। তথ্য সংগ্রহের জন্য কয়েকদিন সংবাদ প্রকাশ করা না হলে প্রতিদিনের পাঠকদের একটি মন্তব্য ছিল থেমে গেলেন কেন? তাই বাধ্য হয়ে কুদ্দুস তালুকদারের কর্মকান্ড সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করতে হয়েছে আমাদের, তাই আবারও তথ্য নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করতে শুরু করলাম মাত্র।

অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, কুদ্দুস তালকদার সম্প্রতি বরিশাল জেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসে লোক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় ব্যপক নিয়োগ বানিজ্য করেন। প্রাথী প্রতি আয় করেছেন ৩ থেকে ৫ লাখ টাকা। একাধিক প্রার্থী তার কাছে এ অর্থ জমা দিয়ে চাকুরী পাননি বলে অভিযোগ করেছে। আবার কারো কারো চাকুরীও হয়েছে। আর যাদের চাকুরী হয়নি তারা এখন পাওনা টাকা চাইছে তার কাছে। টাকা দিবে না বলে কুদ্দুস তালকদার বেশ কয়েকদিন পাওনাদারদের হাত থেকে বাঁচতে গা ঢাকাও দিয়েছিলেন বলে পাওনাদাররা জানান। তারা বলেন, প্রার্থীদের কাছ থেকে অর্থ আর যাদের চাকুরী হয়েছে তাদের অর্থ পুজি করে রাখতে সম্প্রতি দপদপিয়ার কাছে দুটি কার্গো জাহাজ তৈরি করছেন কুদ্দুস তালুকদার। আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই কার্গো দুটি তৈরির কাজ শেষ হবে। ইতোমধ্যে কুদ্দুস তালুকদারের একটি নয় একাধিক গাড়ী রয়েছে। ব্যবসা আছে রেন্ট এ কারের। বাকেরগঞ্জে তার রয়েছে কোটি কোটি টাকার জামি। সাথে বরিশাল নগরীতেও নিজ স্বর্ণ কমল’র ন্যায়ে একটি ভবন ছাড়াও রয়েছে  একাধিক স্থানে জমি। তাই হয়তো তার স্বপ্ন একটি উড়োজাহাজের। হয়তো কোন একদিন জানা যাবে বরিশাল-ঢাকা রুটে যে উড়োজাহাজটি চলছে তার মালিক বাকেরগঞ্জের কুদ্দুস তালুকদারের!

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »