আর্কাইভ

চাঁদার দাবিতে পৌর কাউন্সিলরের ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়ে লুট – গ্রেফতার-১

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ চাঁদার দাবিতে পৌর কাউন্সিলরের ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়ে ভাংচুরসহ লুটপাট করেছে স্থানীয় চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ মিঠু ও তার বাহিনীর সদস্যরা। এসময় বন্দরের ব্যবসায়ীরা ধাওয়া করে মিঠু বাহিনীর ক্যাডার শুভকে আটকের পর গণধোলাই দিয়ে পুলিশের কাছে সোর্পদ করেছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শনিবার দুপুরে বরিশালের গৌরনদী থানা সংলগ্ন বন্দরে।

জানা গেছে, শনিবার সকাল ১১ টার দিকে পোল্টি খামারের মালিক কামরুজ্জামান ট্রাকযোগে চরগাধাতলী এলাকা দিয়ে মালামাল পরিবহনের সময় স্থানীয় চরগাধাতলী মহল্লার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ মিঠু আকন ও তার সহযোগীরা কামরুজ্জামানের কাছে মোটা অংকের টাকা চাঁদা দাবি করে। কামরুজ্জামান বিষয়টি মোবাইল ফোনে তার ভাতিজা পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের পৌর কাউন্সিলর বকতিয়ার হাওলাদারকে জানায়। কাউন্সিলর তাৎক্ষনিক তার ছোট ভাই
যুবলীগ নেতা ইকতিয়ার হাওলাদারকে ঘটনাস্থলে পাঠায়। এসময় ইকতিয়ারের সাথে চাঁদাবাজদের বাকবিতন্ডা হয়। এ ঘটনার জেরধরে ওইদিন বেলা ১২ টার দিকে সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ মিঠু আকনের নেতৃত্বে তার বাহিনীর ক্যাডার ফেলু, ওমর, শুভসহ ৭/৮ জনে অর্তকিতভাবে থানা সংলগ্ন গৌরনদী বন্দরের কাউন্সিলর বকতিয়ার হাওলাদারের মেসার্স হাওলাদার টেডার্সে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করে। হামলাকারীরা যুবলীগ নেতা ইকতিয়ারকে মারধর করে দোকানের ক্যাশ বাক্স ভেঙ্গে নগদ ২৫ হাজার টাকা লুটপাট করে নিয়ে যায়। এসময় বন্দরের ব্যবসায়ীরা সন্ত্রাসীদের ধাওয়া করে শুভ নামের একজনকে আটক করে গণধোলাই দেয়। পরবর্তীতে তাকে পুলিশের কাছে সোর্পদ করা হয়। এ ঘটনায় ইকতিয়ার হাওলাদার বাদি হয়ে গৌরনদী থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

উল্লেখ্য, মিঠু আকন ও তার বাহিনীর অত্যাচারে গৌরনদী বন্দর ও সীমান্তবর্তী কালকিনি উপজেলার চরআইরকান্দি গ্রামের জনসাধারন দীর্ঘদিন ধরে অতিষ্ঠ হয়ে পরেছে। মিঠুর বিরুদ্ধে চুরি, ডাকাতি, চাঁদাবাজিসহ একাধিক মামলা থাকা সত্বেও রহস্যজনক কারনে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করছে না।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »