আর্কাইভ

টয়লেট পরিস্কার করতে হারপিক না নিয়ে কোক নিয়ে যান!

ঝালকাঠি সংবাদদাতা ॥ টয়লেট পরিস্কার করতে হারপিক না নিয়ে একটি কোক নিয়ে যান। কোকটা ভেঙ্গে টয়লেটে ঢেলে দিন। এক ঘন্টা অপেক্ষা করে ওয়াস করুন। দেখবেন হারপিকের চেয়ে বেশী পরিস্কার হয়ে গেছে। মটর সাইকেল কিংবা গাড়ির নাটবোল্ট আটকে গেছে। Cokeএকটু কোক ঢেলে দিয়ে অপেক্ষা করুন। ব্যাটারীতে জং ধরেছে, তাতেও কোক দিন। কাপড়ে মাংসের ঝোল পড়লেও কোক ব্যবহার করতে পারেন। কবরে মানুষের দাঁত বহু বছরেও নষ্ট হয়না। এক গ্লাস কোকের ভেতর মানুষের একটি দাঁত রেখে দিন। দেখবেন এক সপ্তাহের মধ্যে দাঁতের অস্তিত্ব খুঁজে পাবেন না। দ্রুত বৃদ্ধ হতে চাইলে নিয়মিত কোক খান।

গত ২ জুলাই দুপুরে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের একটি সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক একেএম সোহেল আহমেদ একটি ভিডিও চিত্র প্রদশর্নীর মাধ্যমে কোমল পানীয় মানুষের দেহে ক্ষতিকর চিত্রটি তুলে ধরেন। এ সময় জেলা প্রশাসক অশোক কুমার বিশ্বাস, জেলা শিক্ষা অফিসার মাহবুবা হোসেনসহ জেলা পর্যায়ের বিভিন্ন সরকারী বেসরকারী পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

তিনি জানান, ৩৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রায় খাবার হজম হয়। ঠান্ডা কোক খেলে তাপমাত্রা ৪ ডিগ্রীতে নেমে আসে। এ সময় হজম প্রক্রিয়া ব্যাহত হয়ে শরীরের রোগবালাই বেড়ে যায়। বাজারের কোমল পানীয়র বিরুদ্ধে কেউ কিছু বলবেন না। এটি পরিহার করুন।  আমরা পন্যদাস হতে চাইনা। কোমল পানীয় নিত্যদিনের পন্য হয়ে গেছে। এগুলো ছেড়ে দিয়ে দেশীয় ফল খান। রোগ বালাই কমে যাবে।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »