আর্কাইভ

আত্মসাতের দুই যুগ পর মামলা – একযুগ পর অভিযোগপত্র দাখিল

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বরিশালের তৎকালীন বাকেরগঞ্জ জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের ১০ হাজার খালি বস্তা আত্মসাত করার অভিযোগে পরিবহন ঠিকাদারের বিরুদ্ধে দুই যুগ এক বছর পর দায়ের করা মামলার এক যুগ পর অভিযোগপত্র দাখিল করেছে দুদক। গতকাল বুধবার বরিশাল মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছে। অভিযোগপত্র দাখিল করেছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের সমন্বিত বরিশাল জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আমিরুল ইসলাম। অভিযোগপত্রে একমাত্র অভিযুক্ত হলেন, পরিবহন ঠিকাদার বরিশাল নগরীর ৪নং ওয়ার্ডের উলালঘুনী এলাকার বাসিন্দা মৃত খলিলুর রহমানের পুত্র হারুন-অর রশিদ।

অভিযোগপত্রে জানা গেছে, ১৯৭৫ সনের ২৭ ডিসেম্বর বরিশালের তৎকালীন বাকেরগঞ্জ জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের চুক্তি ভিত্তিক পরিবহন ঠিকাদার হিসেবে হারুন-অর রশিদকে ১৫ হাজার খালি বস্তা পিরোজপুরের শ্রীরামকাঠী গুদামে জমা দেয়ার জন্য পাঠানো হয়। শ্রীরামকাঠী গুদামে স্থান না থাকায় সেখান থেকে ভান্ডারিয়া উপজেলা খাদ্য গুদামে জমা দেয়ার জন্য পাঠানো হয়। ঠিকাদার হারুন ৫ হাজার বস্তা জমা দিয়ে ১০ হাজার বস্তা আত্মসাত করে। তৎকালীন বাজার মুল্য হিসেবে ১ লাখ ১৫ হাজার টাকার বস্তা আত্মসাত করার ঘটনায় একমাত্র হারুনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়। প্রতারনা পূর্বক বিশ্বাস ভঙ্গ করে আত্মসাত করার অভিযোগে ২০০০ সনের ২৫ এপ্রিল কোতয়ালী থানায় মামলাটি দায়ের করেন তৎকালীন জেলা দুর্নীতি দমন ব্যুরোর পরিদর্শক বর্তমানে দুদকের প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোঃ আবুল হোসেন। অভিযোগপত্রে পলাতক হারুন-অর রশিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী ও মালামাল ক্রোকী পরোয়ানা জারি করার জন্য প্রাথর্না করেছেন তদন্ত কর্মকর্তা।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »