আর্কাইভ

বরিশালের হাট-বাজারগুলোতে রাক্ষুসে পিনহারা মাছে সয়লব

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ রাক্ষুসে পিনহারা মাছ চাষ ও বাজারজাত সরকার কর্তৃক নিষিদ্ধ হলেও হঠাৎ করে গত দু’দিন থেকে বরিশালের বিভিন্ন হাট-বাজারে এ মাছ অবাধে বিক্রি হচ্ছে। রমজান মাস শুরু হওয়ার সাথে সাথে হাট-বাজারে মাছের সংকটের সুযোগে এক শ্রেনীর অসৎ মাছ ব্যবসায়ী নিষিদ্ধ পিনহারা মাছ বাজারজাত শুরু করেছে। এ মাছ বাজারজাতের কৌশল হিসেবে মাছ ব্যবসায়ীরা পিনহারা মাছকে সাগরের রুপ চাঁদা মাছের প্রজাতি বলে চড়া দামে বিক্রি করছেন। মৎস্য বিভাগের বাজার মনিটরিং না থাকায় অসাধু ব্যবসায়ীরা এ মাছ সহজেই বিক্রি করছে।

আজ সোমবার গৌরনদী উপজেলার আশোকাঠী, মাহিলাড়া, গৌরনদী বন্দর, টরকী বন্দর, পৌর কাঁচা বাজার ঘুরে দেখা গেছে, দেশীয় প্রজাতির মাছের চরম আকাল। কিন্তু পিনহারা মাছে হাট-বাজারগুলো সয়লাব হয়ে আছে। এ সব মাছ সাগরের রুপ চাঁদা মাছ বলে বিক্রি করা হচ্ছে। প্রতিকেজি পিনহারা মাছ ২ থেকে আড়াই’শ টাকা কেজি দরে বিক্রি করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে উপজেলার সর্ববৃহৎ মাছ বাজার টরকী বন্দর মৎস্য বাজারের মাছ বিক্রেতা নুরুজ্জামান বেপারী বলেন, বন্দরের রাজিব মৎস্য আড়ৎ থেকে আমি ১৫০ টাকা কেজি দরে পিনহারা মাছ কিনে বাজারে বিক্রি করতেছি। এ মাছ চাষ ও বাজারজাত নিষিদ্ধ থাকার পরেও কেন বিক্রি করা হচ্ছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পিনহারা মাছ নিষিদ্ধ কিনা তা আমার জানা নাই। আশোকাঠী বাজারের মাছ ব্যবসায়ী অরিফ হোসেন বলেন, বাজারে মাছ সংকট থাকায় ও পিনহারা মাছের তুলনামূলক দাম কম হওয়ায় এ মাছ বিক্রি করছি।

গৌরনদী উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা  প্রনব কুমার বিশ্বাস এ প্রসঙ্গে বলেন, নিষিদ্ধ পিনহারা মাছ বিক্রির খবর এর আগেও আমি শুনেছি। তবে আমি তিন উপজেলার দায়িত্বে থাকায় মনিটরিং করা সম্ভব হচ্ছেনা। আগামী দু’একদিনের মধ্যে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »