আর্কাইভ

বরিশালে ঈদের সাথে বিয়ের বাজার

খোকন আহম্মেদ হীরা, গৌরনদী ॥ ঈদের দিন যতোই ঘনিয়ে আসছে ততোই জমে উঠতে শুরু করেছে বরিশালের ঈদের বাজার। বরিশাল নগরীসহ বিভিন্ন উপজেলার ছোট-বড় শপিংমল, মার্কেট ও বিপণী বিতানগুলো ঈদের কেনাকাটায় সরগরম হয়ে উঠেছে। ঈদের পর পরই শুরু হবে বিয়ের অনুষ্ঠান। তাই এখনই ঈদের কেনাকাটার সাথে শুরু হয়েছে বিয়ের বাজারের কেনাকাটাও।

বরিশাল নগরীর চক বাজার, মহসিন মার্কেট, পোষাক বাজার, র্গীজা মহল্লা, গৌরনদী বন্দর মার্কেট, টরকী বন্দর মসজিদ মার্কেট, গৌরনদী বাসষ্ট্যান্ড সুপার মার্কেটসহ বিভিন্ন মার্কেট ঘুরে দেখা গেছে, প্রতিদিন রোদ-বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে ক্রেতারা মার্কেট ও বিপণী বিতানগুলোতে ভিড় জমাচ্ছেন। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চলছে বেচাকেনা। উচ্চবিত্ত, মধ্যবিত্ত, নিন্মবিত্ত থেকে শুরু করে খেটে খাওয়া মানুষ যার যার সাধ্যমত কেনাকাটা করছে। বড় বড় বিপণী বিতানগুলোতে বাছাই করা কাপড় শো-রুমে শোভা পাচ্ছে। সামর্থ্যবানরা টাকা যতোই হোক না কেন সবচেয়ে সুন্দর ডিজাইনের জামা-কাপড় ক্রয় করার চেষ্টা করছেন তাদের প্রিয়জনের জন্য। ক্রেতারা জানান, অভিজাত মার্কেটগুলোতে পণ্যের দাম কিছুটা বেশি। প্যান্ট পিস, শার্ট পিস, থ্রি পিস, শাড়ি ও তৈরি পোশাকসহ সব পণ্যের দাম গতবারের তুলনায় একটু বেশি।
 
গৌরনদী বন্দর থানার মোড় এলাকার ভাই ভাই বস্ত্র বিতানের স্বত্তাধীকারি ভোলা সাহা জানান, এবার মেয়েদের পছন্দের শীর্ষে রয়েছে ভারতীয় থ্রি পিস, পাকিস্তানি জর্জেটসহ চায়না চিকেন থান কাপড়। এ বছর চায়না চিকেন থান কাপড় ৫’শ থেকে ৩ হাজার টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়াও প্রকারভেদে থ্রি পিস ৬’শ থেকে ১০ হাজার টাকা, শাড়ি ৩৫০ টাকা থেকে ২০ হাজার টাকা, প্যান্ট পিস ৩’শ টাকা থেকে ১৫’শ টাকা, শার্ট পিস ৪’শ থেকে ১২’শ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে। ভোলা সাহা আরো জানান, এবার ঈদের কেনাকাটর সাথে সাথে বিয়ের বাজারের কেনাকাটারও ধুম পরেছে।

গৌরনদীর বিল্লগ্রাম থেকে বিয়ের কেনাকাটা করতে আসা ক্রেতা আসাদুজ্জামান ও মমতাজ বেগম জানান, ঈদের ছুটিতে তাদের চাকুরিজীবি নিকট আত্মীয়-স্বজনেরা বাড়িতে আসবেন। তাই এ সুযোগে তাদের ছোট ভাইয়ের বিয়ের দিন তারিখ ধার্য করা হয়েছে ঈদের পরেরদিন। তাই এখনই তারা ঈদের বাজারের সাথে বিয়ের কেনাকাটাও করছেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »