আর্কাইভ

বরিশালে নোমানের উপস্থিতিতে বিএনপির সাবেক এমপি মঙ্গুকে লক্ষ্য করে জুতো নিক্ষেপ

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান সাবেক মন্ত্রী আব্দুল্লাহ আল নোমানের উপস্থিতিতে দলীয় নেতা-কর্মীরা তুলোধুলো করেছে বিএনপি দলীয় সাবেক সংসদ সদস্য মোশারফ হোসেন মঙ্গুকে। ক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা সংস্কারপন্থি আখ্যা কু-রুচিপূর্ণ শ্লোগান দিয়ে মঙ্গুকে লক্ষ্য করে জুতো নিক্ষেপ করে। বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীদের তোপের মুখে সভাস্থল ত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছে মোশারফ হোসেন মঙ্গু।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার বরিশাল সফরকে কেন্দ্র করে গতকাল শনিবার নগরীর অশ্বিনী কুমার টাউন হলে বরিশাল জেলা উত্তর বিএনপির আয়োজনে প্রতিনিধি সভার আয়োজন করা হয়। আগামী মাসে বেগম খালেদা জিয়ার বরিশালে সাংগঠনিক সফরকে কেন্দ্র করে স্থানীয় নেতাদের সাথে বৈঠক করতে শনিবার বরিশালে আসেন দলের কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান। সকাল ১০টায় উত্তর জেলা বিএনপির প্রতিনিধি সভা শুরু হয় অশ্বিনী কুমার টাউন হলে। সভা চলাকালে বেলা সাড়ে বারোটার দিকে উত্তর জেলা বিএনপির সহসভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সোবাহান বক্তব্য দিতে আসলে উত্তর জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক আকন কুদ্দুসুর রহমানের সমর্থকেরা তাকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন। এ নিয়ে সোবাহান সমর্থকদের সাথে কুদ্দুস সমর্থকদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে উভয়গ্রুপের কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। পরবর্তীতে পুলিশ লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। এ ঘটনার পর পরই একই মঞ্চে বক্তব্য দিতে আসেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও বিএনপি দলীয় সাবেক এমপি মোশারফ হোসেন মঙ্গু। এ সময় নেতা-কর্মীরা তাকে (মঙ্গুকে) সংস্কারপন্থি আখ্যাদিয়ে কু-রুটিপূর্ণ শ্লোগান দিতে থাকে। একপর্যায়ে নেতা-কর্মীরা ক্ষিপ্ত হয়ে মোশারফ হোসেন মঙ্গুকে লক্ষ্য করে জুতা নিক্ষেপ করে।

অপরদিকে একইদিন সন্ধ্যায় নগরীর আব্দুর রব সেরনিয়াবাত বার লাইব্রেরীতে দক্ষিণ জেলা বিএনপির প্রতিনিধি সভার যোগদান করেন আব্দুল্লাহ আল নোমান। সেখানে বিবদমান জেলা বিএনপির সভাপতি আহসান হাবিব কামাল ও মহানগর বিএনপির সভাপতি মজিবর রহমান সরোয়ারের সমর্থকেরা মুখোমুখী অবস্থান নেয়ায় ফলে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন বরিশাল জেলা উত্তর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও মুলাদী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুস সাত্তার খান।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »