আর্কাইভ

গৌরনদীতে পরকীয়া প্রেমিকসহ তিনজন গ্রেফতার – শিশু উদ্ধার

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ অবশেষে গৌরনদীর সরিকল পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার হয়েছে পরকীয়ার টানে ঘরছাড়া প্রবাসীর স্ত্রী নার্গিস আক্তার মনি, প্রেমিক সঞ্জয় সাহা ও তার ছোট বোন নাসরিন আক্তার মুক্তা। শুক্রবার গৌরনদীতে পরকীয়া প্রেমিকসহ তিনজন গ্রেফতার - শিশু উদ্ধাররাতে ঢাকার কাফরুল থানার পূর্ব কাজীপাড়ার একটি ভাড়াটিয়া বাসা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। একই সাথে উদ্ধার করা হয় শিশু নিরবকে (৯)।

সরিকল পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মাহাবুবুর রহমান জানান, বাবুগঞ্জের ভুতেরদিয়া গ্রামের সৌদী প্রবাসী হাবিবুর রহমানের নগদ ১৭ লক্ষ টাকা, ২২ ভরি স্বর্ণালংকারসহ প্রায় ৩০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে তার স্ত্রী নার্গিস আক্তার নয় বছরের শিশু পুত্র নিরবকে নিয়ে পরকীয়ার টানে ঘর ছাড়ে। এ ঘটনায় নার্গিসের স্বামী হাবিবুর রহমান বাদি হয়ে গত ২৮ সেপ্টেম্বর স্ত্রী নার্গিস, শ্বশুর, শাশুড়ি ও শ্যালিকাসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়। গৃহবধুর স্বামী হাবিবুর রহমান জানান, ২০০১ সনে গৌরনদীর সাকোকাঠী গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য খালেক হাওলাদারের কন্যা নার্গিস আক্তার মনির সাথে তার বিয়ে হয়। তাদের ঘরে জন্ম নেয় একটি পুত্র সন্তান। হাবিব দীর্ঘ ১৪ বছর সৌদী আরব থাকেন। তার মা-বাবা কেউ বেঁচে না থাকার কারনে স্ত্রী  নার্গিস ও পুত্র নাহিদকে নিজের বাড়িতে না রেখে শ্বশুর বাড়িতে নিরাপদ ভেবে রেখে যান। প্রবাসে থাকা অবস্থায় তিনি তার স্ত্রী ও শ্বশুরের নামে টাকা পাঠাতেন। এদিকে তার স্ত্রী মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পরিচয়ে সূত্রধরে সঞ্জয় সাহা নামের এক যুবকের সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পরে। সঞ্জয় যশোর কোতোয়ালী থানার বেজপাড়ার নলডাঙ্গা রোডের বাসিন্দা নিকুঞ্জ সাহার পুত্র। সম্প্রতি ওই যুবকের হাত ধরে পুত্র নিরবকে সাথে নিয়ে নার্গিস পিত্রালয় ত্যাগ করে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »