আর্কাইভ

নেপথ্যে এক ডিবি ইন্সপেক্টরের প্রভাব – দুশুমী বাজারে সাংবাদিক সম্মেলনে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৩০

আগৈলঝাড় প্রতিনিধি ॥ দোকানের পজিশন নিয়ে বিরোধের জেরধরে বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার দুশুমী বাজারের স্টল ঘরে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে এক পক্ষের আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে প্রতিপক্ষ ডিবি ইডিবি ইন্সপেক্টরের নির্দেশে ভাইদের হামলায় আগৈলঝাড়ায় সংবাদ সম্মেলন পন্ডন্সপেক্টরের লোকজনে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করেছে। এতে সংবাদ সম্মেলন পন্ড হয়ে যায়। একপর্যায়ে উভয়গ্র“পের মধ্যে কয়েকদফা হামলা ও রক্তক্ষয়ী সংঘর্ঘে উভয়পক্ষের কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়েছে। গুরুতর আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

জানা গেছে, উপজেলার রতœপুর ইউনিয়নের দুশুমী বাজারের একটি দোকানের পজিশন নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে স্থানীয় ফিরোজ শাহ ও প্রতিপক্ষ ঢাকায় কর্মরত ডিবি ইন্সপেক্টর মাহবুবুল আলমের পরিবারের সাথে বিরোধ চলে আসছিলো। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার দুশুমী বাজারের স্টলঘরে বারপাইকা গ্রামের মরহুম মতিয়ার রহমানের পুত্র ফিরোজ শাহ স্থানীয় সাংবাদিকদের নিয়ে ডিবি ইন্সপেক্টর মাহবুবুল আলমের বিরুদ্ধে নিজগ্রামে প্রভাব ও অবৈধ কর্মকান্ডের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। সম্মেলন চলাকালীন মাহবুবুল আলমের ভাই মোস্তাক শাহ্ তার সহযোগীদের নিয়ে দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে অতর্কিত ভাবে হামলা চালিয়ে সম্মেলনের ব্যানার ছিঁড়ে ফেলে। এসময় প্রতিপক্ষ মীরন ও ফিরোজসহ তাদের সমর্থকদের ওপর হামলা চালানো হয়। উভয়পক্ষের মধ্যে লাঠিসোটা নিয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজক এসএম মীরন, ফিরোজ শাহ, হাফিজুল, হাবিব, জহিরুল, প্রতিপক্ষ মোস্তাক শাহ, এমদাদ, ইমাম, মিজান, শহীদ, আলহাজ নজরুল ইসলাম, শাজাহান শাহসহ কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়। প্রতিপক্ষের হামলাকারীরা সংবাদ সম্মেলনস্থলের চেয়ার, টেবিল ভাংচুর করে তছনছ করে ফেলে।

ডিবি ইন্সপেক্টরের নির্দেশে ভাইদের হামলায় আগৈলঝাড়ায় সংবাদ সম্মেলন পন্ড - আহত ২০ - মামলার প্রস্তুতি

খবর পেয়ে আগৈলঝাড়া থানার ওসি মোঃ সাজ্জাদ হোসেন সঙ্গীয়ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

থানার একটি বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, ডিবি ইন্সপেক্টর মাহবুবুল আলম আগৈলঝাড়া থানা পুলিশকে প্রভাবিত করার চেষ্ঠা করছে। এ নিয়ে পুরো এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ডিবি ইন্সপেক্টর মাহবুবুল আলমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, সাংবাদিকদের ওইখানে সম্মেলন করতে যাওয়া ঠিক হয়নি। আগৈলঝাড়া থানার ওসি সাজ্জাদ হোসেন বলেন, এ ব্যাপারে কোন পক্ষই এখনও থানায় অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন

আরও দেখুন...
Close
Back to top button
Translate »