আর্কাইভ

গৌরনদীতে ব্যবসায়ীর পরিবারের সাতজনকে অজ্ঞান করে সর্বস্ত্র লুট

গৌরনদী অফিস ॥ অজ্ঞান পার্টির সংঘবদ্ধ সদস্যরা রবিবার রাতে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বাটাজোর ইউনিয়নের ঘেয়াঘাট গ্রামের ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান বেপারীর পরিবারের সাতজনকে অজ্ঞান করে নগদ ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা, ৭ ভরি স্বর্ণালংকারসহ ৫ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে। এ ঘটনায় গৌরনদী থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, কালকিনি উপজেলার মিয়ারহাট গ্রামের অজ্ঞান পার্টির সদস্য আবদুল খালেক বেপারী ও তার এক সহযোগী রবিবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে আত্মীয় পরিচয় দিয়ে গৌরনদী উপজেলার ঘেয়াঘাট গ্রামের ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান বেপারীর বাড়িতে বেড়াতে আসে। ওই অজ্ঞান পাটির সদস্যরা রাতের খাবারের সাথে চেতনানাশক দ্রব্য মিশিয়ে রাখে।  মিজানুর রহমানসহ তার পরিবারের সদস্যরা রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়লে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা আলমিরা ভেঙ্গে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকারসহ অন্যান্য মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। সোমবার ভোরে প্রতিবেশীরা জ্ঞানশূণ্য অবস্থায় গৃহকর্তা মিজানুর রহমান বেপারী, তার পিতা আবদুল আলিম বেপারী, মা জাহানারা বেগম, স্ত্রী শারমিন বেগম, ভাই স্বপন বেপারীসহ পরিবারের সাত সদস্যকে গৌরনদী হাসপাতালে ভর্তি করেন। বিকেলে গৃহকর্তা মিজানুর রহমানের জ্ঞান ফিরে আসার পর তিনি নিজেই বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »