আর্কাইভ

উজিরপুরের দুটি সংখ্যালঘু পরিবারকে গ্রাম ছাড়া

গৌরনদী ও উজিরপুর সংবাদদাতা ॥ জমিজমা আত্মসাতের লক্ষ্যে হামলার পর উল্টো মিথ্যে মামলা দায়ের করে বরিশালের উজিরপুর উপজেলার দুটি সংখ্যালঘু পরিবারকে গ্রামছাড়া করা হয়েছে। গত এক মাস যাবৎ ওই পরিবার দুটির সদস্যরা প্রভাবশালীদের রোষানলে পরে পৈত্রিক ভিটে ছেড়ে গ্রাম ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছেন।

অভিযোগে জানা গেছে, উজিরপুর উপজেলা সদর থেকে ৩০ কিলোমিটার পশ্চিমে প্রত্যন্ত পশ্চিম সাতলা আলামদি গ্রামের নিরাঞ্জন বৈদ্য ও মহানন্দ বৈদ্যের পৈত্রিক সম্পত্তির ওপর দীর্ঘদিন থেকে লোলুপ দৃষ্টি পরে স্থানীয় মৃত আনোয়ার উল্লাহ মাষ্টারের পুত্র প্রভাশালী ভূমিদস্যু ফরিদ মোল্লার। তারই ধারাবাহিকতায় ওই পরিবার দুটির জমিজমা আত্মসাতের লক্ষ্যে গত ১৭ অক্টোবর দুপুরে ফরিদ মোল্লা ও তার সহযোগীরা পরিকল্পিত ভাবে নিরাঞ্জন বৈদ্যর বসত ঘরে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুরসহ নিরাঞ্জন ও তার স্ত্রী অঞ্জলী বৈদ্য, কন্যা দোলা বৈদ্যকে কুপিয়ে জখম করে। উল্টো বিষয়টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য নিরাঞ্জন বৈদ্য তার ভাই মহানন্দ বৈদ্যসহ দু’পরিবারের ১৩ জনকে আসামি করে প্রভাবশালী ফরিদ মোল্লা বাদি হয়ে উজিরপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশের গ্রেফতার আতংক ও প্রভাবশালীর অব্যাহত হুমকির মুখে দু’পরিবারের সদস্যরা নিজ গ্রাম থেকে পাশ্ববর্তী কোটালীপাড়ার রামশীল গ্রামে আত্মগোপন করেছেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »