আর্কাইভ

খাঞ্জাপুর ইউনিয়নের প্রত্যন্ত মেদাকুলে মেলার নামে প্রতিযোগীতা মূলক উলঙ্গ নৃত্য ॥ জমজমাট জুয়ার আসর

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ গৌরনদী উপজেলার খাঞ্জাপুর ইউনিয়নের প্রত্যন্ত মেদাকুল হাইস্কুলের মাঠে ও বাকাই নিরঞ্জন বৈরাগী সংস্কৃতিক কলেজ মাঠে গত পাঁচদিন ধরে মেলার নামে প্রতিযোগীতা মূলক উলঙ্গ নৃত্য ও জমজমাট জুয়ার আসর বসানো হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, কার্তিক দশরা উপলক্ষ্যে গত পাঁচদিন পূর্বে মেদাকুল হাইস্কুলের মাঠে ও বাকাই নিরঞ্জন বৈরাগী সংস্কৃতিক কলেজ মাঠে স্থানীয় প্রভাবশালী আ’লীগ নেতারা চিত্র বিনোদনের জন্য নৃত্যানুষ্ঠানের আয়োজন করেন। গোপালপুরের সাতপাড় এলাকা থেকে যাত্রার একাধিক নৃত্য শিল্পীদের ভাড়ায় এনে বিভিন্ন শ্রেনী ভেদে দুই’শ, এক’শ ও পঞ্চাশ টাকা হারে টিকেটের বিনিময়ে প্রতিদিন সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত উলঙ্গ নৃত্য পরিচালনা করে আসছেন।

সূত্রে আরো জানা গেছে, বর্তমানে উঠতি বয়সের তরুন ও যুবক দর্শকদের মনোরঞ্জনের জন্য ওই দুটি মেলায় উলঙ্গ নৃত্যের প্রতিযোগীতা চলছে। একই সাথে মেলার পাশ্ববর্তী স্থানে বসানো হয়েছে জুয়ার আসর। ফলে ওইসব এলাকার উঠতি বয়সের তরুন ও যুব সমাজ ক্রমেই ধ্বংসের দিকে অগ্রসর হয়ে পরছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক দর্শকেরা জানান, ওই দুটি মেলায়ই উলঙ্গ নৃত্যের প্রতিযোগীতা চলছে। স্থানীয়রা জানান, স্থানীয় থানা পুলিশের কতিপয় কর্মকর্তা ও গুটি কয়েক মিডিয়া কর্মীকে ম্যানেজ করেই দশ দিনের জন্য এসব উলঙ্গ নৃত্য ও জমজমাট জুয়ার আসর বসানো হয়েছে। স্থানীয় সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দরা জরুরি ভিত্তিতে মেলার নামে উলঙ্গ নৃত্য ও জমজমাট জুয়ার আসর বন্ধের জন্য প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »