আর্কাইভ

আগৈলঝাড়ায় এ্যাপ্রোচ সড়ক নির্মাণে অনিয়ম

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বরিশালের জনগুরুতপূর্ণ গৌরনদী-গোপালগঞ্জ ভায়া আগৈলঝাড়া-পয়সারহাট মহাসড়কের আগৈলঝাড়া সদরের ব্র্যাক অফিস সংলগ্নস্থানের নবনির্মিত ব্রীজের দু’পাশের এ্যাপ্রোচ সড়ক নির্মানে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিম্নমানের খোয়া ব্যবহার ও এ্যাপ্রোচ সড়কে ঢাল না দেয়ার ফলে এলাকাবাসির মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হলেও সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার ক্ষমতাসীন দলের প্রভাবশালী হওয়ায় কেউ মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছেনা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বিগত আওয়ামীলীগ সরকারের সময়ে এ সড়কটি মহাসড়কে উন্নীত করে ১৬ কিলোমিটার সড়কের নির্মাণ কাজ শুরু হয়। একই সাথে এ সড়কের দুটি ব্রীজের নির্মাণ কাজ পায় বরিশালের মেসার্স মতিউর রহমান নামের একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। ১কোটি ৯০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ব্রীজ দুটির কাজ ইতোমধ্যে সম্পন্ন করা হলেও ব্রীজের দু’পাশের এ্যাপ্রোচ সড়ক নির্মাণ না করায় যানবাহনসহ জনসাধারণের চলাচলে চরম দুর্ভোগ পোহাত হচ্ছে। স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, গত চারদিন ধরে এ্যাপোচ সড়কের নির্মান কাজ শুরু করা হয়। নিম্নমানের খোয়া ব্যবহারের মাধ্যমে খোঁদ বরিশাল সওজ’র উপ-সহকারী প্রকৌশলী কাঞ্চন মিয়ার উপস্থিতিতে ব্র্যাক সংলগ্ন ব্রীজটির দু’পাশের এ্যাপ্রোচ সড়ক নির্মাণের কাজ শুরু করেন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকেরা। অভিযোগে আরো জানা গেছে, এ্যাপোচ সড়কের ঢালে মাটি না দেয়ায় যেকোন সময়  রাস্তা ধ্বসে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশংকা রয়েছে। এ ব্যাপারে সড়ক ও জনপদ বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী শিশির কুমার মোড়ল বলেন, ব্রীজের এ্যাপ্রোচ সড়কে নিম্নমানের খোয়া ব্যবহার করছে কিনা তা আমার জানা নেই। ওই কাজের দায়িত্বে রয়েছেন উপ-সহকারী প্রকৌশলী কাঞ্চন মিয়া। তবে বিষয়টি খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »