আর্কাইভ

বরিশালে জামায়াত-পুলিশ ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় আহত-১০

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ জামায়াতের ডাকা হরতালে গতকাল মঙ্গলবার ভোরে বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের জয়শ্রী বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় পিকেটারদের সাথে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে কমপক্ষে ১০জন জামায়াত ও শিবির কর্মী আহত হয়েছে।

জানা গেছে, পিকেটাররা মহাসড়কের জয়শ্রী এলাকায় ইট ও গাছের গুড়ি ফেলে যানবাহন চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। খবর পেয়ে ভোর ছয়টার দিকে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ইট ও গাছের গুঁড়ি সরিয়ে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করার চেষ্টা করলে পিকেটারদের সাথে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ ছাড়াও বরিশাল নগরীর রুপাতলী, কাশিপুর, গৌরনদী ও রহমতপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় পিকেটাররা ছয়টি বাস ও ৫টি আলফা মাহেন্দ্রা টেম্পু ভাংচুর করেছে। এ সময় পুলিশ সানাউল্লাহ ও আব্দুল হালিম নামের দু’শিবির কর্মীসহ সোমবার রাতে গ্রেফতার করে আরো ৫ জামায়াত কর্মীকে। অপরদিকে মেহেন্দিগঞ্জ থানা পুলিশ পিকেটিংকালে আরো ৬ জামায়াত কর্মীকে আটক করেছে।

এদিকে মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত জামায়াত নেতা কাদের মোল্লার যাবজ্জীবন কারাদন্ডের রায় ঘোষণার পর পরই এ রায়ের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বরিশালের মুক্তিযোদ্ধাসহ সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দরা।

মঙ্গলবার দুপুরে রায় ঘোষণার পর পরই বরিশালের বীর মুক্তিযোদ্ধা মহিউদ্দিন মানিক বীরপ্রতিক, যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সৈয়দ মনিরুল ইসলাম বুলেট ছিন্টু এ রায়ের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, মানবতাবিরোধীদের ফাঁসির রায় ব্যতিত অন্যকোন বিকল্প রায় মেনে নেয়া যায় না। একই কথা জানিয়েছেন, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের গৌরনদী উপজেলা শাখার আহবায়ক সৈকত গুহ পিকলু। অপরদিকে রায় ঘোষণার পর পরই বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের উদ্যোগে নগরীর সদর রোডে আনন্দ মিছিল বের করা হয়েছিলো।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »