আর্কাইভ

তরুন প্রজন্মের মাঝে নেই নোবেল বিজয়ী ইউনুস

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশের শান্তি প্রতিষ্ঠায় সকল যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসির দাবিতে শাহবাগসহ দেশব্যাপী তরুন প্রজন্মের অব্যাহত আন্দোলন সংগ্রামে একাত্বতা প্রকাশ করে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দদের দেখা গেলেও এখনো দেখা মেলেনি শান্তির জন্য নোবেল বিজয়ী ড. মোহাম্মদ ইউনুসকে। এনিয়ে তরুন প্রজন্মের মাঝে নানা প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে।

কারো কারো মতে, তাহলে কি নোবেল বিজয়ী ইউনুস যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চান না। এ ব্যাপারে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান শাখাওয়াত হোসেন শাওন বলেন, সারা বাংলাদেশের মানুষ যখন শাহবাগের আন্দোলনের সাথে একাত্বতা প্রকাশ করে পুরো দেশজুড়ে রাজপথে আন্দোলনে নেমেছেন তখন সত্যি নোবেল বিজয়ী ইউনুসের একাত্বতা প্রকাশ করা উচিত ছিলো। তিনি একাত্বতা প্রকাশ না করে আমাদের মতো তরুন প্রজন্মের কাছে ঘৃনিত হয়েছেন। আসলে মনে হয় তিনি যুদ্ধাপরাপধীদের বিচার চান না। গৌরনদী বাসষ্ট্যান্ড সুপার মার্কেটের ব্যবসায়ী ইমতিয়াজ আহম্মেদ কোরাইশী সোহাগ জানান, নোবেল বিজয়ী ইউনুস দেশের কল্যানে সত্যিকার ভাবে কখনোই ছিলেন কিনা এটাই আমার প্রশ্ন ? তিনি কেবল মাত্র বিশেষ একটি দেশের এজেন্ডা। যে দেশ ১৯৭১ সনে আমাদের স্বাধীনতার বিরোধীতা করেছে। তা হলে কি করে ডক্টর ইউনুসের মতো লোকের শাহবাগের স্বাধীনতা প্রজন্ম মঞ্চে আশার প্রত্যাশা করা যেতে পারে? মেধাবী কলেজ ছাত্র সুজন সরদার বলেন, নোবেল বিজয়ী ইউনুস একজন শ্রদ্ধেয় ব্যক্তি হয়েও আমাদের তরুন প্রজন্মের মাঝে না আসায় আমরা হতাশ। আসলে তিনি মনে হয় যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চান না।

বুধবার সকালে গৌরনদী বাসষ্ট্যান্ডে একাত্তরের চেতনা মঞ্চের আলোচনা সভায় বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের উপজেলা শাখার আহবায়ক সৈকত গুহ পিকলু তার বক্তব্যে বলেন, দেশব্যাপী তরুন প্রজন্মের ডাকা লাগাতার আন্দোলন কর্মসূচী চললেও এখনো কোনখানে দেখা কিংবা কোন প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেননি নোবেল বিজয়ী ড. ইউনুস। আসলে তিনি কাবলিওয়ালার ভূমিকায় রয়েছেন। যেমনটি কাবলিওয়ালারা টাকার জন্য ব্যবসা করে চলে যেতেন তেমনি ড. ইউনুসও টাকার জন্য শুধু বাংলাদেশে ব্যবসা করে যাচ্ছেন। অথচ ড. ইউনুস বাংলাদেশে শান্তির জন্য নোবেল বিজয়ী হয়েছেন। তিনি আরো বলেন, এরআগেও রামুতে নাশকতার ঘটনায়ও নোবেল বিজয়ী ড. ইউনুসকে দেখা যায়নি। এ নিয়েও নানা প্রশ্ন উঠেছে তরুন প্রজন্মের মাঝে। বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হক ঘরামী বলেন, যুদ্ধপরাধীদের বিচারের দাবিতে সারাদেশের মানুষ যখন একট্টা; তখন ইউনুসের একাত্বতা প্রকাশ না করা একটি বোকামির লক্ষন। আসলে তিনি সত্যিকার ভাবে দেশকে ভালোবাসেন না। তিনি মনে হয় যুদ্ধাপরাধীদের বিচারও চান না।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »