আর্কাইভ

শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ ভাতায় ভাগ বসাচ্ছেন শিক্ষা কর্মকর্তারা

আহমেদ আবু জাফর, ঝালকাঠী ॥  ঝালকাঠীর নলছিটিতে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের প্রশিক্ষনকালীন ভাতায় ভাগ বসাচ্ছেন খোদ দপ্তরের কর্মকর্তারা। শিক্ষকদের গত মার্চ-এপ্রিল সাব-ক্লাষ্টার প্রশিক্ষণের জন্য ২’শ ৪০ টাকা খাবার ভাতা ও উপকরণ ক্রয়ের জন্য ৩০ টাকা প্রত্যেকের জন্য মোট ২’শ ৭০টাকা সরকারি বরাদ্দ থাকলেও ক্লাষ্টারের দায়িত্বে থাকা উপজেলা সহকারি শিক্ষা কর্মকর্তারা প্রত্যেক শিক্ষককে ১’শ ৭০টাকা করে ধরিয়ে বিদায় দিয়েছেন বলে অভিযোগ শিক্ষকদের। অভিযোগটি নলছিটি উপজেলা শিক্ষা অফিসার মাহতাব উদ্দিন অস্বীকার করলেও সহকারি শিক্ষা অফিসার আরজুদা বেগম ও রিয়াজুল ইসলামের কথায় অভিযোগের সত্যতা বেড়িয়ে আসে। আর এতে শিক্ষকদের ভাতার টাকায় ভাগ বসানোর অভিযোগের তীরটি চলে আসে কর্তাব্যক্তি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মাহতাব উদ্দিনের দিকে।

সাব-ক্লাষ্টার প্রশিক্ষণে প্রত্যেক শিক্ষকের জন্য বরাদ্দ কত এবং কত টাকা দেয়া হয়েছে  জানতে চাইলে ২’শ ৪০টাকা করে বরাদ্দ থাকলেও প্রত্যেক শিক্ষককে ১’শ ৭০ টাকা করে দেয়া হয়েছে বলে স্বীকার করেন সহকারি শিক্ষা অফিসার রিয়াজুল ইসলাম ও আরজুদা বেগম।  বরাদ্দকৃত টাকা থেকে কেন কম দেয়া হলো এমন প্রশ্নের জবাবে তারা বলেন, অর্থ ছাড় করাতে উপজেলা হিসাবরক্ষন অফিস ও শিক্ষা অফিসের খরচ বাবদ উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মাহতাব উদ্দিন তাদেরকে যে পরিমাণ টাকা দিয়েছেন ভ্যাট ও ট্যাক্স বাদ দিয়ে সেই টাকা তারা প্রশিক্ষণে অংশ নেয়া শিক্ষকদের মাঝে বন্টন করেছেন।

তবে উপজেলা শিক্ষা অফিসার তা অস্বীকার করে বলেন, প্রত্যেক শিক্ষকের জন্য সরকারি বরাদ্দের খাবার খাতা ২’শ ৪০টাকা ও উপকরণ ক্রয়ের জন্য ৩০টাকা করে মোট ২’শ ৭০টাকা হিসেবে ক্লাষ্টার অনুযায়ী চেক’র মাধ্যমে সহকারি শিক্ষা অফিসারদের হাতে দেয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »