আর্কাইভ

ঈদে জিন্স প্যান্ট ও শার্টের বায়না – অবশেষে গণধোলাই খেয়ে যুবক শ্রীঘরে

সংসারের একমাত্র গৃহপালিত ছাগলটি চুরি করে বিক্রি করতে নিয়ে যাওয়ার সময় যুবক মিলন জনতার হাতে ধরা পরে। একপর্যায়ে চোর সন্দেহে জনতা যুবক মিলনকে আটক করে গনধোলাই দিয়ে পুলিশের কাছে সোর্পদ করেছে। অবশেষে পুলিশ মিলনকে বরিশাল আদালতে প্রেরন করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল মঙ্গলবার ভোররাতে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার গেরাকুল গ্রামে।

পুলিশ ও এলাকাবাসি সূত্রে জানা গেছে, পার্শ্ববর্তী কালকিনির উপজেলার দক্ষিন সাহেরামপুর গ্রামের দিনমজুর বেল্লাল শরীফ ও শেফালী বেগমের ৩ সন্তানের মধ্যে বড় পুত্র হচ্ছে মিলন শরীফ (১৮)।
কান্নাজড়িত কন্ঠে থানা হাজতে বসে মিলন বলেন, মোর বন্ধুরা হক্কলডি (সবাই) জিন্সের প্যান্ট ও জামা (শার্ট) পড়ে। হেইয়া দেইখ্খা মোর শখ হইছে জিন্সের প্যান্ট ও জামা গাঁয় দেওয়ার। সোমবার রাইতে মোর বাপের ধারে এবারগো ঈদে জিন্সের প্যান্ট ও জামা কিন্না দেওয়ার কতা কইছি। এইয়া লইয়া মোর আব্বার লাগে মোর ঝগড়া হয়। হেইয়ার পর ঘরের হক্কলডি ঘুমানোর পরে মুই মঙ্গলবার ভোর রাইতে মোগো বকনা ছাগলটি চুরি কইরা বিক্রির জন্য টরকীর হাটে রওয়ানা দিই।

পুলিশ জানায়, পথিমধ্যে গৌরনদী পৌর এলাকার গেরাকুল হেলিপ্যাড নামকস্থানে পৌঁছলে স্থানীয় লোকজন চোর সন্দেহে মিলনকে আটক করে। কথায় অসংগতি থাকায় এলাকাবাসি আটককৃত মিলনকে গনধোলাই দেয়। এক পর্যায়ে যুবক মিলনকে থানা পুলিশের কাছে সোর্পদ করা হয়। ওইদিন (গতকাল মঙ্গলবার) দুপুরে আটককৃত যুবক মিলনকে ৫৪ ধায়ায়  বরিশাল আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

Back to top button