আর্কাইভ

বানারীপাড়ায় ওএমএস এর মাধ্যমে আতব চাল বিক্রি

সাধারন ক্রেতাদের মাঝে বিরুপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। উপজেলা খাদ্য অধিদপ্তর সিদ্ধ চালের পরিবর্তে আতব চাল বিক্রির সিদ্ধান্ত নেয়। নি¤ন ও মধ্য বিত্ত আয়ের ক্রেতারা কম দামে চাল কিনতে গিয়ে পড়ছেন ঝামেলায়। ফলে ওএম এসএর চালের  দোকানে ক্রেতাদের ভীড় নেই বললেই চলে। সাধারন ক্রেতারা খোলা বাজারে চাল ক্রয়ে অনেকটা আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে।  ও এমএস এর চালের ডিলার ও তাদের লোকজন ক্রেতার অভাবে চাল পাহাড়া দিচ্ছে বলে প্রত্যক্ষ দর্শী সূত্রে জানা গেছে। অনেক প্রতীদ্বন্দ্বীতা করে ডিলার সিপ পাওয়া ডিলাররা চাল নিয়ে পড়েছেন চরম বিপাকে। চাল অবিক্রিত থেকে যাওয়ায় লাভের চেয়ে লোকসানের সম্ভবনা বেশী বলে জানিয়েছেন একজন ্ওএমএস এর ডিলার। এদিকে আতব চাল দেয়া প্রসঙ্গে উপজেলা খাদ্য পরিদর্শক সাহানা পারভীনকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি জানান আমাদের মজুদে যে পরিমান আতব চাল রয়েছে তা বিক্রি শেষ পুনরায় ডিলারদের সিদ্ধ চাল দেয়া হবে। সিদ্ধ চাল দেয়া হলে ক্রেতাদের ভীড়ে আবার জমে উঠবে  ওএমএস এর চালের দোকান।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »