আর্কাইভ

মোবাইল ফোনের কল ট্যারিফঃ সুকৌশলে বাড়িয়েছে অপারেটররা!

দিন বদলেছে ( একটি মোবাইল ফোন কোম্পানির ডায়ালগ অনুযায়ী )। আর তাই বদলেছে সব মোবাইল অপারেটরদের (একমাত্র সিটিসেল ছাড়া) ট্যারিফ বদলানোর কৌশলও। এখন আর ‘পিক আওয়ারে’ বেশি বিল ধরা হচ্ছে না। বর্তমানে ‘পিক আওয়ারে’ ১ টাকা বা এক টাকার কমে (ভ্যাট ছাড়া) কথা বলা সুযোগ দিচ্ছে সিটিসেল ছাড়া অবশিষ্ট সব মোবাইল ফোন অপারেটরগুলো। কিন্তু এই স্বল্প মূল্যে কথা বলার ক্ষতি (!) পুষিয়ে নিচ্ছে বিকাল ৫টার পর থেকে রাত ১২ পর্যন্ত অহেতুক বেশি ট্যারিফ আদায় করে।

মজার ব্যাপার হচ্ছে বিকাল ৫টা থেকে রাত ১২ পর্যন্ত সব মোবাইল অপারেটরই ( সিটিসেল ছাড়া ) ভ্যাট ছাড়া ১.৫০ টাকা বা তার কাছাকাছি ট্যারিফ চালু করেছে। ভুক্তভোগী গ্রাহকদের এখন একটাই প্রশ্ন বিকাল বেলায় কী কারণে মোবাইল বিল বেশী দিতে হবে। এর কোন ব্যাখ্যা অবশ্য কোন মোবাইল অপারেটরই তাদের স্ব স্ব গ্রাহকের কাছে জানাতে ব্যর্থ হয়েছে। তবে ভুক্তভোগীদের মতে এটি আসলে মোবাইল ফোন অপারেটরদের হীন চরিত্রেরই বহিঃপ্রকাশ পেয়েছে। কারণ মুনাফা লোভী এসব মোবাইল ফোন অপারেটরদের একমাত্র লক্ষ্যই হচ্ছে ছলে বলে কৌশলে শুধুমাত্র মুনাফা অর্জন। যে পরিমাণ টাকার ছাড় দিচ্ছে ‘পিক আওয়ারে’ তার চেয়ে বেশি পরিমান টাকা অত্যন্ত সুকৌশলে গ্রাহকের কাছ থেকে আদায় করার এক অভিনব কৌশলে লিপ্ত হয়েছে এরা। যেকোন উপায়েই গ্রাহকের কাছ থেকে মাত্রাতিরিক্ত মুনাফা অর্জনে বাংলাদেশের মোবাইল অপারেটরদের উদাহরণ পৃথিবীতে বিরল। কোন কোন গ্রাহক মন্তব্য করেছেন যদি রাতভর ২৫ পয়সা ( ভ্যাট ছাড়া ) কথা বলতে দিলে মোবাইল অপারেটরদের কোন ব্যবসায়িক ক্ষতি না হয় তবে দিনের বেলায় ক্ষতি কোথায়। সারারাত যখন দেশের কোটি কোটি মানুষ ঘুমিয়ে থাকে সারাদিনের ক্লান্তি জড়ানো শরীরে, তখন কথা বলার জন্য শতকরা কতজন লোক জেগে থাকবে সেই স্বল্পমূল্যে কথা বলার প্রয়োজনে?

সংশ্লিষ্টদের মতে মোবাইল ফোন কোম্পানিগুলো বাংলাদেশের মানুষের সাথে এক ধরণের ছেলে খেলায় মেতেছে। এরা ক্ষেত্রবিশেষে বিটিআরসি’র আইনকে তোয়াক্কা না করেই বিভিন্ন ভাবে গ্রাহকের কাছ থেকে নানা কৌশলে টাকা আদায় করে নিচ্ছে। ভুক্তভোগিদের মতে এভাবে চলতে দিলে গ্রাহকদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে যাবে এবং পুরো টেলিকমিউনিকেশন সেক্টরে এর নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। তাই মোবাইল অপারেটরসহ সংশ্লিষ্ট সকলের এবারে শুধুমাত্র মুনাফার দিকে না তাকিয়ে গ্রাহকদের সুবিধার কথা বিবেচনা করার জন্য তাগিদ দিচ্ছে সংশ্লিষ্ট গ্রাহকরা।

Source : http://techtunes.com.bd/reports/tune-id/244/

Writer : http://techtunes.com.bd/tuner/duronta

shamim.hayder@gmail.com

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »