আর্কাইভ

বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের বাজেট ঘোষণা

বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের ২০১১-১২ অর্থ বছরের জন্য ২৫৩,৯৫,৯২,৪১৮ (দুই শত তিপান্ন কোটি পচানব্বই লাখ বিরানব্বই হাজার চারশত আঠার) টাকার প্রস্তাবিত বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। একই সাথে ২০১০-১১ অর্থ বছরের ১০৫,৫৬,১৮,৮০৬ টাকার সংশোধিত বাজেট ঘোষণা করা হয়। মেয়র অ্যাড. শওকত হোসেন হিরন আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় কর্পোরেশন মিলনায়তনে এ বাজেট ঘোষণা করেন। ঘোষিত বাজেট সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন আয়ের উৎস, সরকারী অনুদান এবং বিদেশী সাহায্য সংস্থা থেকে সম্ভাব্য আয়ের উপর ভিত্তি করে ঘোষণা করা হয়।

বাজেট ঘোষনাকালে লিখিত বক্তব্যে মেয়র বলেন, সিটি কর্পোরেশনের নিজস্ব উৎস থেকে আয় খুব কম হওয়ায় অফিস এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীর সকল ব্যয় মেটানোর পর এলাকার উন্নয়ন খুবই দুরহ। এজন্য সরকারী সাহায্য ও দাতা সংস্থার অনুদানের উপর বাজেটে নির্ভর করতে হয়। তিনি বলেন উন্নয়ন একটি চলমান প্রক্রিয়া।বর্তমান পরিষদ দ্বায়িত্ব নেয়ার পর এ পর্যন্ত সিডর পূর্নবাস প্রকল্প,বন্যা পূর্নবাসন প্রকল্প,কর্পোরেশনের রাস্তা,ড্রেন নির্মান এবং বিভিন্ন রাস্তার মোর প্রশস্তকরন,সিটি কর্পোরেশনের অবকাঠামো উন্নয়ন,পনি সরবরাহ এবং যন্ত্রপাতি সংগ্রহ প্রকল্প,১২৫ কিলোমিটার সিসি রোড,২৯ কিলোমিটার ফুটপাথ,৩ কিলোমিটার ওয়াকওয়ে,৪২টি বক্্র কালভার্ট,৬৩টি ক্রস ড্রেন,৩টি আরসিসি ব্রীজ,২ কিলোমিটার রোড ডিভাইডার,২টি মার্কেট,১টি পাবলিক টয়লেট নির্মান এবং নগর ভবন বর্ধিতকরনের কাজ করা হয়েছে। মেয়র বলেছেন বরিশালকে আধুনিক মহানগরী বির্নিমানের লক্ষে প্রায় ৮১৮.৭১ কোটি টাকার ১২টি প্রকল্প অনুমোদনের জন্য মন্ত্রনালয়ে দাখিল করা হয়েছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য বিসিসি’র বিভিন্ন সড়ক প্রশস্তকরন ও উন্নয়ন এবং ড্রেন-কাম ফুটপাথ নির্মান অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প,ব বরিশাল বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়াম নির্মান প্রকল্প, ব্রীজ কালভার্ট নির্মান প্রকল্প,ভূমি অধিগ্রহনসহ ট্রক নির্মান প্রকল্প, জেলখাল,ভাটার খাল,সাগরদী খাল সংরক্ষনসহ খালসমূহ পুনরুদ্ধার ও পুনঃ খনন কাজ,তিনটি কবরস্থান, একটি শশ্মান ও একটি খ্রীষ্টান সমাধিস্থল নির্মান প্রকল্প। এদিকে এবারের বাজেটে দুস্থ মুক্তিযোদ্ধা,সাংস্কৃতিক কর্মী ও দুস্থ সাংবাদিকদের সাহায্যে ১৫ লাখ টাকা বরাদ্ধ রাখা হয়েছে। এর বাইরে বিধবা ভাতা প্রদান,গড়িয়ার পাড় নতুন বাস টার্মিনাল নির্মানের জন্য অধিগ্রহন,বস্তি উন্নয়ন ,শিশু বান্ধব নগরী গড়ার কার্যক্রম,প্রাকৃতিক দূযোর্গ,বৃক্ষ রোপনের জন্য বরাদ্ধ রাখা হয়। উল্লেখ্য এর আগে ২০১০-১১ অর্থ বছরের জন্য ১৯৭,৭২,৩৫,৭৮৪/- (একশত সাতানব্বই কোটি বাহাত্তর লাখ পয়ত্রিশ হাজার সাতশত চুরাশি) টাকার প্রস্তাবিত বাজেট ঘোষণা করা হয়।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »