আর্কাইভ

আগৈলঝাড়ায় দ্বিতীয় স্ত্রীকে অমানুষিক নির্যাতন

গত দু’বছর পূর্বে দ্বিতীয় বিয়ে করেন রতন বাড়ৈ (৫২) নামের এক ব্যবসায়ী। দু’বছরে দ্বিতীয় স্ত্রীর গর্ভে সন্তান না আসায় ক্ষিপ্ত হয়ে আজ রবিবার দুপুরে দ্বিতীয় স্ত্রী তুলি হালদারকে অমানুষিক নির্যাতন করেছে রতন। স্থানীয়রা মুর্মুর্ষ অবস্থায় তুলিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার বাহাদুরপুর গ্রামে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বাকাল গ্রামের নিরঞ্জন হালদারের কন্যা তুলি হালদার (২৬) জানান, উপজেলার বাহাদুরপুর গ্রামের মৃত বিজয় বাড়ৈর পুত্র রতন বাড়ৈর সাথে তার দু’বছর পূর্বে বিয়ে হয়। ২৫ বছর পূর্বে রতন বাড়ৈর মনতারা বাড়ৈকে প্রথম বিয়ে করলেও ওই সংসারে তার কোন সন্তান জন্মগ্রহন করেনি। ফলে তাকে (তুলিকে) দ্বিতীয় স্ত্রী হিসেবে রতন বিয়ে করেন। বিয়ের দু’বছর পরেও তুলির গর্ভে সন্তান না আসায় প্রায়ই তাকে রতন শারিরিক নির্যাতন করে আসছিলো।

আজ রবিবার দুপুরে একই অপরাধে উভয়ের মধ্যে বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে রতন বাড়ৈ গৃহবধূ তুলিকে অমানুষিক নির্যাতন করে। বাড়ির লোকজনে মুর্মুর্ষ অবস্থায় তুলিকে উদ্ধার করে আগৈলঝাড়া হাসপাতালে ভর্তি করে। তুলি হালদার আরো জানায়, তাকে (তুলিকে) বাড়ি থেকে বিতারিত করতে পারলে রতন পূর্ণরায় বিয়ে করার জন্য ব্যাকুল হয়ে উঠেছে। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »