আর্কাইভ

গৌরনদীতে দু’দল গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার আশোকাঠী ও টিকাসার গ্রামবাসীর মধ্যে সোমবার রাতে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় গ্রামের কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। গুরুতর আহতদের গৌরনদী ও বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জানা গেছে, ওইদিন রাত সাড়ে নয়টার দিকে আশোকাঠী কাজী বাড়ির মসজিদের সম্মুখে বসে তুচ্ছ ঘটনার জেরধরে টিকাসার গ্রামের সাদ্দাম সরদারের নেতৃত্বে একদল যুবকেরা আশোকাঠী গ্রামের রাব্বি সরদার, জহির হোসেন ও বাপ্পী সিকদারের ওপর হামলা চালিয়ে রক্তাক্ষ জখম করে। এসময় তাদের ডাকচিৎকারে আশোকাঠী গ্রামের লোকজন এগিয়ে এসে টিকাসার গ্রামের যুবকদের ধাওয়া করে পাল্টা হামলা চালায়। হামলা-পাল্টা হামলায় উভয়গ্রামের কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। টিকাসার গ্রামের লোকজন ওইদিন রাতেই দেশীয় ধারালো অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আশোকাঠী গ্রামের এস্কেন্দার শিকারীর বসত ঘর ও গোয়াল ঘরে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করে। একপর্যায়ে তাদের প্রতিরোধে আশোকাঠী গ্রামের সমর্থকেরা এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা দেশীয় ধারালো অস্ত্র নিয়ে তাদের ধাওয়া করে। ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার সময় পুরো এলাকায় চরম উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ধারালো অস্ত্রসহ টিকাসার গ্রামের সমর্থক সাইদুল আকন, সোহান আকন, সাদ্দাম সরদার ও জহির সরদারকে আটক করে। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। হামলায় গুরুতর আহত আশোকাঠী গ্রামের রাব্বি সরদার ও জহির হোসেনকে প্রথমে গৌরনদী পরবর্তীতে ওইদিন রাতেই গুরুতর অবস্থায় তাদের বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »