আর্কাইভ

ডাক্তারের ভূল চিকিৎসার কারনে সাতক্ষীরার এক শিশু মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে

আহসানুর রহমান রাজীব, সাতক্ষীরা ॥ ডাক্তারের ভুল চিকিৎসার কারণে ১০বছরের এক শিশু মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। শিশুটির নাম আবু জাহার অন্তর (১০)। সে শহরের পুরাতন সাতক্ষীরার মাজহারুল ইসলাম ছেলে। শিশুটিকে বাচানোর জন্য দরিদ্র পিতা মাজহারুল তার সমস্ত সম্পদ বিক্রি করে দিয়েছেন। আজ তিনি নিঃস্ব হয়ে পথে পথে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। সমস্ত শরীরে ক্যান্সারের জীবানু বয়ে বেড়াচ্ছে শিশু অন্তর। যে বয়সে সে বন্ধুদের সংগে স্কুলে যাবে, খেলাধুলা করবে সে এখন ভরাক্রান্ত মনে বলে বেড়াচ্ছে আমাকে বাঁচান। আমি বাঁচতে চাই। আমি স্কুলে যাবো। আমাকে স্কুলে পাঠান। আমি পড়তে চাই।

গত মঙ্গলবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের কৃষ্ণচূড়া তলায় একটি ভ্যানের উপর শুয়ে অসুস্থ হয়ে কাতরাচ্ছিল ও উক্ত কথা গুলো শিশুটি সাংবাদিকদের বলছিল। এসময় অন্তরের পিতা মাজহারুল ইসলাম জানান, মাস ছয়েক আগে অন্তরের বাম পায়ের হাটুতে ব্যথা ও যন্ত্রনা অনুভব করলে তাকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে ডাক্তার আলোক সরকার (চর্ম,যৌন, সেক্স ও এলার্জি বিশেষজ্ঞ) তার চিকিৎসা করেন। এক টানা দুমাস ভিটামিন ও নাপা ট্যাবলেট খাওয়ানোর পর অন্তরের অবস্থার অবনতি হলে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর ডাক্তার ওয়ালিদ হোসেন অন্তরের রক্ত পরীক্ষা ও এক্সরে করলে টিউমার ধরা পড়ে। পরবর্তীতে যশোর সদর হাসপাতালে ডাক্তার আব্দুর রউফ অন্তরের দেহের কোষ পরীক্ষা করে ক্যান্সারের বিষয়টি নিশ্চিত হন। তিনি অন্তরের চিকিৎসার জন্য ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তির পরামর্শ দেন। পরে পঙ্গু হাসপাতলে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এখানে অন্তরের জীবানু সম্পর্কে ডাক্তার নিশ্চিত হন। এক হাসপাতাল থেকে অন্য হাসপাতালে ভর্তি করতে গিয়ে মাজহারুল ইসলামের সমুদয় সম্পত্তি (অর্ধ কাঠা জমি) বিক্রির দেড় লাখ টাকাই খরচ হয়ে যায়। পঙ্গু হাসপাতালের ডাক্তাররা জানিয়েছেন, অন্তরের শরীরে আবারো অস্ত্র পাচার করা লাগবে অন্যথায় তাকে বাঁচানো যাবে না এজন্য দরকার কয়েক লাখ টাকা।

ডাক্তাররা আরো জানিয়েছেন, রোগের প্রাথমিক অবস্থায় অনেকটা সময় ধরে ভুল চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। রোগ নির্নয় না করেই ডা: অলোক সরকার মনগড়া চিকিৎসা দিয়েছেন যা একজন ডাক্তার হিসেবে তিনি রোগীর প্রতি চরম অবহেলা ও দায়িত্ব হীনতার পরিচয় দিয়েছেন।

এদিকে শিশু অন্তরের পিতা মাজাহারুল ইসলাম তার ছেলের জীবন বাঁচাতে সমাজের ধনী ও বিত্তবান ব্যক্তিদের সাহায্য  কামনা করেছেন। সাহায্য পাঠাতে ০১৮৩৫-২৪৯৮২২ নম্বর মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করতে অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »