আর্কাইভ

আগরপুরে মেয়াদোর্ত্তীন কোমল পানি বিক্রির ধুম

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ প্রচন্ড গরমে যখন একটু স্বত্তি পেতে জনসাধারন ফ্রিজের কোমল পানির দিকে ঝুঁকে পরেছেন, ঠিক তখনই বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার প্রত্যন্ত আগরপুর বাজারের কতিপয় অসাধু ব্যবসায়ীরা দেদারছে মেয়াদোর্ত্তীন কোমল পানি বিক্রি শুরু করেছে। আর এ কোমলপানি পান করে ইতোমধ্যে প্রায় দশজন গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, আগরপুর বাজারের ভানু স্টোর, শাহিন স্টোর ও কাসেম স্টোর থেকে অতিসম্প্রতি কোমলপানি পান করে স্থানীয় দশ যুবক গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পরে। বিষয়টি জানতে পেরে বাজার কমিটির সভাপতি কিসলু মিয়া, সাধারন সম্পাদক ইউসুফ খান, স্থানীয় প্রভাবশালী সাত্তার খান তাদের সহযোগীদের নিয়ে উল্লেখিত দোকানে ম্যাজিষ্ট্রেট ছাড়াই কিংবা স্থানীয় প্রশাসনকে না জানিয়ে ঝটিকা অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান মেয়াদোর্ত্তীন মাম, পাওয়ার, ফুটো, টাইগার, লেমন, সেভেন আপ কোমল পানি উদ্ধার করে। পরবর্তীতে ওই তিন দোকানের মালিকদের কাছ থেকে প্রতিজনকে ১৫ হাজার টাকা করে সর্বমোট ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করে পুরো টাকাই উল্লেখিত বাজার কমিটির নেতৃবৃন্দরা ভাগবাটোয়ারা করে নেয়। এ নিয়ে বাজারের সাধারন ব্যবসায়ীদের মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। আগরপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এস.আই মোঃ নুরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, প্রশাসনের কাউকে না জানিয়ে ম্যাজিষ্ট্রেট পাওয়ার নিয়ে ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানে অভিযান ও জরিমানা আদায়ের বিষয়টি সম্পূর্ণ বে-আইনী।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »