আর্কাইভ

গৌরনদীর গরিবের ব্যাংকে ব্যাপক সাফল্য

গৌরনদীর নলচিড়া কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোঃ আবুল কাশেম আকন জানান, শহজ শর্তে ঋণ দিয়ে নলচিড়া ইউনিয়নের বেকার-যুবকদের কর্মসংস্থানের লক্ষে ১৯৯০ সালের ১০ অক্টোবর মাত্র ২৮ জন সদস্য নিয়ে এ প্রতিষ্ঠানটির যাত্রা শুরু হয়। সে সময় মূলধন ছিলো মাত্র ২ হাজার টাকা। ১৯৯৩ সালের ২৬ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠানটি নিবন্ধন ও ১৯৯৪ সালের ৩০ মে জাতীয় প্রতিষ্ঠান কাল্বের সদস্য পদ লাভ করে।

বর্তমান সভাপতি মীর মানিক উদ্দিন জানান, বর্তমানে নলচিড়া কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়নে পুরুষ ৮৬৭ ও মহিলা ৫৬৮ জনসহ মোট ১৪ শত ৩৫ জন সদস্যা-সদস্যা রয়েছেন। সাধারন সম্পাদক কাজী মনিরুজ্জামান জানান, প্রতিষ্ঠালংগ্নের ২ হাজার টাকার মূলধন আজ দাঁড়িয়েছে প্রায় ২ কোটিতে। তিনি আরো জানান, ব্যাংকের ন্যায় সদস্য-সদস্যারা প্রতিমাসে নলচিড়া কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়নে টাকা জমা রাখেন। জমাকৃত টাকা কেবল মাত্র সদস্য-সদস্যাদের মাঝে সর্ব্বোচ্চ ১ লক্ষ টাকা করে সহজ শর্তে ঋণ দেয়া হয়। আর সে সকল সদস্যরা ঋণ গ্রহন করেন না, তাদের জমাকৃত টাকার শতকরা ২০ ভাগ লভাংশ হিসেবে বিতরন করা হয়। ঋণ আদান-প্রদানের জন্য নলচিড়া কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়নে চারজন ষ্টাফ কর্মরত রয়েছেন। এছাড়াও তিন বছর পর পর সদস্য-সদস্যাদের ভোটের মাধ্যমে পরিচালনা কমিটি গঠন করা হয়।

দি কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লীগ অব বাংলাদেশ লিমিটেড কাল্বের এরিয়া কো-অডিনেটর মোঃ শাহিনুল হাসান জানান, নলচিড়া কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন থেকে ঋণ নিয়ে নলচিড়া ইউনিয়নের তিন শতাধিক বেকার-যুবক ক্ষুদ্র ব্যবসা করে আজ স্বাবলম্বী হয়েছেন। কাল্বের বরিশাল অঞ্চলের পরিচালক মোঃ রাসেদুজ্জামান ঝিলাম জানান, নলচিড়া কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লিঃ ওই ইউনিয়নের বেকার-যুবক ও গরীব মানুষের ব্যাংক। এ ব্যাংকটি হতে পারে অত্র অঞ্চলের বেকার-যুবকদের জন্য এক বিড়ল দৃষ্টান্ত।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »