আর্কাইভ

খালেদার জনসভার টাকা ভাগাভাগি নিয়ে গৌরনদীতে বিএনপির কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করেছে ছাত্রদল নেতারা

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বিএনপির চেয়ারর্পাসন ও বিরোধী দলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়ার বরিশালের  জনসভায় যোগদানকারী ছাত্রদল নেতা-কর্মীদের দুপুরে খাবার পরিবেশন না করা ও কেন্দ্রীয় নেতার বরাদ্ধকৃত টাকার ভাগাভাগিকে কেন্দ্র করে বিএনপির কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করেছে বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল নেতা-কর্মীরা। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে গৌরনদীতে।

বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা জানান, বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও গৌরনদী উপজেলা বিএনপির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সোবাহান বেগম খালেদা জিয়ার বরিশালের জনসভা সফল করতে ২০ টি বাস ভাড়া করে দলীয় নেতা-কর্মীদের বরিশাল নিয়ে যান। খালেদা জিয়া জনসভা শেষ করে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়ে রাত পৌনে ৮টার দিকে গৌরনদী অতিক্রম করেন। নেত্রী চলে যাওয়ার পরে রাত সাড়ে নয়টার দিকে ছাত্রদল কর্মী নুর আলম, রনি কবিরাজ, মিঠু, নিজাম, ইয়াসিন, শাকিল বাবু, রায়হান ও ইমরানসহ ৫০/৬০ জন ছাত্রদল কর্মীরা দুপুরে খাবার না দেয়া ও কেন্দ্রী ওই নেতার বরাদ্ধকৃত টাকার ভাগের দাবিতে গৌরনদী বাসষ্টান্ডস্থ বিএনপির কার্যালয়ে ফিল্মিষ্টাইলে হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারী ছাত্রদল নেতারা দলীয় কার্যালয়ের চেয়ার, টেবিল, টেলিভিশন, দলীয় নেত্রীর বিলবোর্ড ও আসবাবপত্র ব্যাপক ভাংচুর করে। খবর পেয়ে উপজেলা যুবদলের সভাপতি সফিকুর রহমান শরীফ স্বপন ও পৌর যুবদলের সভাপতি নান্না খান ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করার চেষ্টা করলে বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল নেতা-কর্মীরা তাদের লাঞ্চিত করে। পরে রাত দশটার দিকে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন।

বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল নেতা-কর্মীরা জানান, তাদের বরিশালে নেয়ার পরে নেতারা তাদের কোন খবর রাখেনি। তাদের জন্য বরাদ্ধকৃত টাকা উপজেলা ছাত্রদলের সিনিয়র নেতারাই আত্মসাত করেছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »