আর্কাইভ

ভাবীকে পতিতালয়ে বিক্রির অভিযোগে ননদ ও দেবরদের বিরুদ্ধে থানায় পাচার মামলা দায়ের

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বরিশালের গৌরনদী উপজেলার মাগুড়া গ্রামে ননদ, ভাশুর ও দেবর কর্র্তৃক অমেলা মন্ডল (৩২) নামক এক গৃহবধুকে পতিতালয়ে বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে। সে ওই গ্রামের জেলে বলরাম মন্ডলের স্ত্রী। দীর্ঘ ৩ মাস ৮ দিন অবরুদ্ধ থাকার পর নির্যাতিতা পালিয়ে এসে গত ২৩ জানুয়ারী গৌরনদী থানায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মানব পাচার মামলা দায়ের করেছেন।

পুলিশ ও নির্যাতিতা গৃহবধু জানান, গত ৬ সেপ্টেম্বর সন্ধায় তার চাচাতো ননদ লক্ষী বৈদ্য, ভাসুর সুধির মন্ডল, দেবর নারায়ন মন্ডল তাকে বাসায় কাজ দেবার কথা বলে কৌশলে মাদারীপুর পতিতালয়ের পতিতা সরদার অঞ্জিতের কাছে বিক্রি করে দেয়। সেখানে তাকে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে যৌনকাজে বাধ্য করা হয়। কিছুদিন পর তাকে অভিযুক্ত অম্বিকা বালার ভাড়াটিয়া বাসায় নিয়ে রাখা হয়। গৃহবধু অমেলা জানায়, পরবর্তিতে ওই চক্রের লোকজন তাকে ভারতে পাচারের ফন্দি করে। বিষয়টি টের পেয়ে সেখান থেকে সে পালিয়ে আসে। এ ঘটনায় অমেলা বাদী হয়ে ৪ জনের বিরূদ্ধে গৌরনদী থানায় মামালা দায়ের করেন। ওসি আবুল কালাম জানান, মামলা দায়েরের পর আসামীরা এলাকা ছেড়েছে। তাদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানান।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »