আর্কাইভ

বিভিন্ন নামে মঞ্চ নির্মান তরুনদের ডাকে উত্তাল গোটা দক্ষিণাঞ্চল

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ কসাই কাদের মোল্লাসহ সকল যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসির দাবিতে তরুন প্রজন্মের ডাকে ক্রমেই উত্তাল হয়ে উঠছে বরিশালসহ গোটা দক্ষিণাঞ্চল। ইতোমধ্যে বরিশাল নগরীসহ বিভিন্ন উপজেলায় বিভিন্ন নামে নির্মান করা হয়েছে মঞ্চ। ওইসব মঞ্চে গত তিনদিন ধরে চলছে প্রতিবাদী শ্লোগান, সংগীতসহ বিভিন্ন কর্মসূচী। সকল যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসির রায় কার্যকর না হওয়া পর্যন্ত এ কর্মসূচী চালিয়ে যাওয়ার ঘোষনা দিয়েছেন তরুন প্রজন্মের আয়োজকরা। এছাড়া যুদ্ধাপরাধীদের মদদদাতাদের পরিচালিত দুটি পত্রিকায় অগ্নিসংযোগ করেছে তরুন প্রজন্ম।

বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, বরিশাল নগরীর অশ্বিনী কুমার টাউন হলের সম্মুখে তরুন প্রজন্মের নির্মানাধীন একাত্তর মঞ্চে গত তিন দিনের ন্যায় গতকাল রবিবার সকালে বরিশাল সরকারি ব্রজমোহন (বি.এম) কলেজ, অমৃতলাল দে কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা গণ সংগীতের মাধ্যমে এতাত্মতা প্রকাশ করে সমাবেশে যোগদান করেন। বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের গৌরনদী উপজেলা শাখার আহবায়ক সৈকত গুহ পিকুলর উদ্যোগে গৌরনদী বাসষ্ট্যান্ডে গত ৯ ফেব্র“য়ারি নির্মান করা হয় মুক্তিযোদ্ধা চেতনা মঞ্চ। ওই মঞ্চে বিরামহীন ভাবে চলছে গণসংগীত, আলোচনা সভা ও রাজাকারদের নিয়ে বিভিন্ন শ্লোগান।

একইদিন আগৈলঝাড়া উপজেলা সদরে সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মরহুম মতিয়ার রহমান তালুকদারের পুত্র সোয়েব ইমতিয়াজ লিমনের নেতৃত্বে তরুন প্রজন্ম নির্মান করেছেন গণ জাগরণ মঞ্চ। এসব মঞ্চ থেকে গণসঙ্গীতের পাশাপাশি একটাই দাবি উঠে এসেছে ‘ফাঁসি, ফাঁসি, ফাঁসি চাই-কাদের মোল্লাসহ যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসি চাই। রাজাকারের বাসস্থান-পাকিস্তান আর কবরস্থান। লাখো শহীদের বাংলায়-রাজাকারের ঠাঁই নাই”। এসব মঞ্চের মোমবাতি প্রজ্জলন, মশাল মিছিল, গণসংগীত, আবৃত্তি, নাটকসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে একাত্মতা প্রকাশ করে যোগদান করেছেন মুক্তিযোদ্ধা, বৃদ্ধ, তরুন-তরুনী, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কিশোর, শ্রমজীবি, চাকরীজীবি, গৃহিনী, স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ। প্রতিদিনই নানা কর্মসূচীতে এসব মঞ্চ স্থল হয়ে ওঠে পরিপূর্ণ। এছাড়ার বরিশালের বরগুনায় গত ৯ ফেব্র“য়ারি আমার দেশ ও নয়া দিগন্ত’র দু’শতাধিক পত্রিকায় আগুন ধরিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে তরুন প্রজন্মের নেতৃবৃন্দরা।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »