গৌরনদী সংবাদ

গৌরনদীতে নির্মানাধীন বিল্ডিংয়ের মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ বিদ্যুত লাইন

নির্মানাধীন সুরম্য দ্বিতল ভবনের ওয়াল ছিদ্র করে বিল্ডিংয়ের একপাশ থেকে অন্যপাশে অধিক ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় নেয়া হয়েছে বিদ্যুতের (টু-টু) দু’তারের লাইন। ফলে যেকোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশংকা করছেন এলাকাবাসী।

ঘটনাটি জেলার গৌরনদী উপজেলার মাহিলাড়া ইউনিয়নের শরিফাবাদ গ্রামের।

স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, মাহিলাড়া বাজারের প্রভাবশালী ব্যবসায়ী ওই গ্রামের দেলোয়ারুল আলম তপন গত কয়েক মাস পূর্বে দ্বিতল ভবনের সুরম্য বসত ঘর (বিল্ডিং) নির্মানের কাজ শুরু করেন। তার পূর্বের ঘরের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া পল্লী বিদ্যুতের টু টু লাইন নির্মানাধীন দ্বিতল ভবনের দেয়াল ছিদ্র করে বিল্ডিংয়ের একপাশ থেকে অন্যপাশে নেয়া হয়।

অভিযোগ রয়েছে, নির্মানাধীন বিল্ডিংয়ের মালিক তার নির্মান কাজের জন্য ব্যবহৃত বিদ্যুত চুরির কৌশল হিসেবে বিল্ডিংয়ের দেয়াল ছিদ্র করে এ অবৈধ কাজ করেছেন।

স্থানীয়রা এ অবৈধ কাজের সাথে পল্লী বিদ্যুতের কতিপয় অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারী ও লাইনম্যানকে দায়ি করে সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে এ অনৈতিক কাজের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার দাবি করেছেন।

বিদ্যুত চুরির অভিযোগ অস্বীকার করে ব্যবসায়ী আনোয়ারুল আলম তপন জানান, লাইন অন্যত্র সরিয়ে নেয়ার জন্য বিদ্যুত অফিসে একাধিকবার ধর্ণা দিয়েও কোন সুফল না পেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায়ই তিনি নির্মানাধীন বিল্ডিংয়ের মধ্যের অংশের বিদ্যুত লাইনে প্লাষ্টিক মুড়িয়ে নির্মান কাজ শেষ করেছেন। এ জন্য পল্লী বিদ্যুতের অনুমতি নেয়া হয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...

Leave a Reply