গৌরনদী সংবাদ

গৌরনদীতে শীতের পরশ, রাতভর গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি

দিনে গরম আর রাতে কনকনে ঠান্ডা। সন্ধ্যা নামতেই কুয়াশার হাল্কা চাঁদরে ঢাকা পড়ছে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার পথঘাট। এরইমধ্যে মেঘলা আকাশে রবিবার রাতের গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি ও বৈরী আবহাওয়া কার্তিকের মাঝ প্রান্তেই শীতের আগমনী বার্তা দিয়ে গেছে। হাল্কা শীতের কারনে হেমন্তের প্রকৃতি শীতের আবহে সজীব হয়ে উঠেছে।

আবহাওয়া বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, স্বাভাবিক অপেক্ষা ২০-২৫ ভাগ কম বৃষ্টিপাতের মধ্যদিয়েই ঘূর্ণিঝড় ‘হুদহুদ’ এর হাত ধরে সারাদেশ থেকে এবারের বর্ষা মৌসুমের বিদায় নিয়েছে। চলতি বছরের শুরু থেকেই সারাদেশে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ কিছুটা কম ছিলো। গত জানুয়ারিতে বরিশাল অঞ্চলে ৯ মিলিমিটার বৃষ্টিপাতের কথা থাকলেও কোনো বৃষ্টি হয়নি। ফেব্র“য়ারি মাসেও বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ছিল ১৮ শতাংশ কম। মার্চ মাসে এ অঞ্চলে বৃষ্টি হয় মাত্র মাত্র ৮.৮ মিলিমিটার। অথচ স্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের নির্ধারিত পরিমাণ ছিল ৫৩ মিলিমিটার, যা ছিলো স্বাভাবিকের চেয়ে প্রায় ৮৩.৮ শতাংশ কম। এপ্রিলে বরিশালে স্বাভাবিকের চেয়ে প্রায় ৯৫ শতাংশ কম বৃষ্টি হয়েছে। ওইমাসে স্বাভাবিক বৃষ্টি হওয়ার কথা ছিলো ১৩২ মিলিমিটার। অথচ মাত্র ৭ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। মে মাসেও সারাদেশেই সামগ্রিকভাবে প্রায় ৭৯ শতাংশ কম বৃষ্টি হয়েছিলো। জুন মাসে বরিশালে স্বাভাবিক অপেক্ষা ২০ শতাংশ কম বৃষ্টি হয়েছে। পাশাপাশি জুলাই ও আগস্ট মাসেও বরিশাল অঞ্চলে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ছিল প্রায় ১৮ শতাংশ ও ১১ শতাংশ কম।

gournadi
আবহাওয়া বিভাগের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, নবেম্বরের প্রথম সপ্তাহ থেকেই স্বাভাবিক শীতের আগমন ঘটবে। কিন্তু তার আগেই (অক্টোবর মাসের) শেষদিকে রবিবার রাতের গুড়ি গুড়ি বৃষ্টিপাতের ফলে শীত মৌসুম শুরু হয়ে গেছে। তবে আসন্ন শীত মৌসুমে গত বছরের মতো তীব্র শৈত্যপ্রবাহের বিষয়ে এখনই কোনো মন্তব্য করেনি আবহাওয়া বিভাগের কর্মকর্তারা। গতকাল সোমবার সকালে মৃদু শীতের কারনে উপজেলাবাসীকে গায়ে শীতের পোষাক পরে বেরুতে দেখা গেছে।

আরও সংবাদ...

Leave a Reply

Back to top button