বরিশাল গনপূর্ত বিভাগের টেন্ডার নিয়ে সাধারন ঠিকাদারদের উপর ছাত্রলীগ-যুবলীগের হামলা

বরিশাল গনপূর্ত নির্বাহী প্রকৌশলীর দপ্তরে মেরিন একাডেমি ভবন সহ ৫টি কাজের টেন্ডার দাখিলের শেষ দিনে নামধারী ছাত্রলীগ-যুবলীগ ও গুছ পার্টির হাতে সাধারন ঠিকাদারদের টেন্ডার দাখিলে বাধা ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে।

ঘটনা স্থলে পুলিশ ও র‌্যাবের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

বরিশাল নগরীর বান্দরোডে মেরিন একাডেমি ভবন, ডরমেটরি ভবন, ডেপুটি কমান্ডের বাস ভবন, ও রেসিডিয়ান ভবন সহ ৫টি ভবন নির্মান কাজের ৪৮ কোটি টাকার কাজের টেন্ডার দাখিলে শেষ দিনে আজ সকাল ১০টার দিকে বরিশালের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও মিজানুর রহমান ফার্মের পরিচালক শফিকুল আলম গুলজার সহ কয়েকজন সাধারন ঠিকাদার একাডেমি ভবন নির্মান ২২ কোটি টাকা কাজের টেন্ডার দাখিল করতে গেলে ছাত্রলীগ-যুবলীগ ও গুছ পার্টির সদস্যরা বাধাপ্রদান করে।

ঠিকাদার গুলজার একপর্যায়ে দৌড়ে নির্বাহি প্রকৌশলীর ভবনে গিয়ে আশ্রয় নেয়।

পরবর্তিতে পুলিশ ও র‌্যাব এসে লাঠিচার্জ করে প্রকৌশলী ভবন থেকে টেন্ডার সন্ত্রাস পার্টিদের তাড়িয়ে দেয়।

পরে টেন্ডার সন্ত্রাস পার্টির সদস্যরা অফিসের চারিদিকে অবস্থান নেয়। বিভিন্ন স্থান থেকে আসা সাধারন ঠিকাদাররা আতংকিত হয়ে পড়েছে।

এসময় লাঞ্ছিত হওয়া ঠিকাদার শফিকুল আলম গুলজার অভিযোগ করে জানান টেন্ডার দাখিল কাজে বাধাপ্রদান কারী বরিশাল বিএম কলেজের মেয়াদ উত্তির্ন কর্ম পরিষদের ভিপি মঈন তুষার, যুবলীগের মোস্তাক, বিপ্লব, লিটু সহ বেশ কিছু ছাত্রলীগ ও যুবলীগের সদস্যরা টেন্ডার নিয়ে অফিসে প্রবেশ কালে বাধা প্রদান করে।

এসময় পুলিশ দাড়িয়ে নিড়ব ভূমিকা পালন করে। পরবর্তিতে টেন্ডার দাখিল করার পর পুলিশ একটু মারমুখি হয়ে ওঠে। বাধা প্রদান কাজে নেপথ্যে সদর উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টুর হাত রয়েছে বলেও অভিযোগ করেন।

সদর উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টু জানান, আমি আমার বোনের চিকিৎসা নিয়ে ঢাকায় অবস্থান করছি। টেন্ডারের বিষয় আমার কিছু জানানেই।

এ ব্যাপারে ভিপি মঈন তুষারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি কোন দরপত্র ক্রয় করিনি। উক্ত টেন্ডারের সাথে আমার কোন সম্পৃক্ততা নেই।

গতপূর্ত বিভাগের প্রকৌশলী মোঃ জাকির হোসেন বলেন উক্ত ৪৮ কোটি টাকার ৫টি ভবন নির্মান কাজে আনুমানিক ৫০টির মত দরপত্র বিক্রি হয়েছে। টেন্ডার দাখিলের কাজে ভিতরে কোন ধরনের অপ্রিতিকর ঘটনা ঘটেনি। বাহিরে কি ঘটেছে তা আমার জানা নেই।

Leave a Reply