গৌরনদী সংবাদ

গৌরনদীতে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে কলেজ ছাত্রী সুমা হত্যা মামলার আসামিরা

এইচ এম সুমন : যৌতুকের দাবিতে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার ইল্লা গ্রামে কলেজ ছাত্রী গৃহবধু সুমা আক্তার হত্যা মামলার আসামিরা এলাকায় প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও পুলিশ তাদের গ্রেফতার করছে না। হত্যা মামলা তুলে নেয়ার জন্য আসামিরা মামলার বাদিকে প্রাননাশের হুমকি দিচ্ছে। রোববার সন্ধ্যায় গৌরনদী প্রেসক্লাবে উপস্থিত হয়ে মামলার বাদি নিহত সুমার পিতা মতু ফকির এ অভিযোগগুলো করেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের আগস্ট মাসে উপজেলার ইল্লা গ্রামের মন্নান ঘরামীর পুত্র রাশেদ ঘরামীর সাথে প্রতিবেশী মতু ফকিরের কন্যা বার্থী ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থিনী সুমা আক্তারের (১৯) বিয়ে হয়। শ্বশুর বাড়ি থেকে গত ৮ মাস পূর্বে রাশেদকে এক লাখ টাকা যৌতুক দেয়া হয়। এরপর থেকে আবার একলাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে রাশেদ ঘরামী প্রায়ই সুমা আক্তারের ওপর নির্যাতন চালিয়ে আসছিল।

কয়েকদিন আগে যৌতুকের টাকা আনার জন্য মারধর করে বাড়ি থেকে সুমাকে বের করে দেয় রাশেদ। গত ১০মে সকালে সুমা আক্তার যৌতুকের টাকা না নিয়ে খালি হাতে স্বামীর বাড়ি ফেরে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে স্বামী ও তার শ্বশুর বাড়ির লোকজনে সুমা আক্তারের ওপর নির্মম নির্যাতন চালায়। এতে সুমা অজ্ঞান হয়ে পড়লে রাশেদ তাকে গৌরনদী হাসপাতালে নিয়ে গেলে কতর্ব্যরত চিকিৎসক সুমাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। হাসপাতাল থেকে স্বামী রাশেদ ইজিবাইক যোগে সুমার লাশ নিয়ে ওইদিন দুপুর আড়াইটার দিকে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। পথিমধ্যে ওইদিন দুপুর পৌনে তিনটার দিকে লাশবাহী ইজিবাইক ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের গৌরনদীর লিলা সিনেমা হলের সামনে পৌছলে স্ত্রীর লাশ রেখে কৌশলে রাশেদ পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ নিহত সুমার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল মর্গে প্রেরণ করেন। এ ঘটনায় সুমার পিতা মতু ফকির বাদি হয়ে ওইদিন রাতে সুমার স্বামী, দেবর, শ্বশুরসহ ৪ জনকে আসামি করে গৌরনদী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা থানার এস.আই মো. ফারুক বলেন, আমার বিরুদ্ধে বাদির আনিত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। অন্য মামলার সাক্ষী দেয়ার জন্য আমি ২দিন ছুটিতে থাকলেও আসামিদের গ্রেফতারের জোর প্রচেষ্টা অব্যাহত ছিল। আসামিরা পলাতক থাকা সত্ত্বেও প্রেফতারের জোর প্রচেষ্টা চলছে। বাদি মতু ফকির আসামিদের হুমকির বিষয় ওসি কিংবা আমার কাছে কিছু জানায়নি। জানালে জিডি করা হতো।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...

1 thought on “গৌরনদীতে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে কলেজ ছাত্রী সুমা হত্যা মামলার আসামিরা”

Leave a Reply