গৌরনদী সংবাদ

গৌরনদী ইউপি নির্বাচনে মনোনয়ন তালিকায় আ.লীগের ৪৬ ও বিএনপির ২১ জন

এইচ এম সুমন/কৃষ্ণঃ বরিশালের গৌরনদী উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের তৃণমূল পর্যায়ের ৪৬ জন নেতা মনোনয়নের তালিকায় রয়েছেন। বিএনপির মনোনয়নের তালিকায় রয়েছেন ২১ জন।

বড় দুটি দলের ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ মনোনয়ন প্রত্যাশীদের তালিকা তৈরি করে এরই মধ্যে উপজেলা নেতৃবৃন্দের কাছে তা জমা দিয়েছেন।

আওয়ামী লীগ ও বিএনপির দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার খাঞ্জাপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে দলের মনোনয়ন পেতে দৌঁড়ঝাপ শুরু করেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মো.  মিজানুর রহমান মিজান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান নুর-আলম সেরনিয়াবাত, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আবদুর রাজ্জাক হাওলাদার, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মতলেব মাতুব্বর, সাধারণ সম্পাদক অখিল চন্দ্র দাস, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক প্রণব রঞ্জন বাবু দত্ত ও বিএনপি থেকে ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান আকন সিদ্দিকুর রহমান, ইউনিয়ন বিএনপির সহ-সভাপতি লুৎফর রহমানসহ ৪জন। তবে এর মধ্য থেকে দলের মনোনয়নের তালিকায় রয়েছে আওয়ামী লীগের ৭ জন ও বিএনপির ৩ জন।

বার্থী ইউনিয়নে দলীয় প্রতীকে প্রার্থী হতে তোড়জোড় শুরু করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এইচ.এম রাজু আহম্মেদ হারুন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আঃ রাজ্জাক হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান প্যাদা, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আনিসুর রহমান আনিস, উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা মকবুল সরকার, আওয়ামী লীগের নেতা বর্তমান মেম্বার বজলুর রশিদ মাঝি,  ইউনিয়ন যুবলীগের নেতা মানিক মাঝি ও বিএনপি থেকে ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আবুল কালাম খান, উপজেলা বিএনপি নেতা সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ফখরুল মাঝি, বিএনপি নেতা এস.এম মোশারফ, মাসুদ মাঝি এবং আমিনুল ইসলাম শাহীন। এ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনয়নের তালিকায় ৭ জন ও বিএনপির ৩ জন।

উপজেলার চাঁদশী ইউনিয়নে নির্বাচন করতে দৌঁড়ঝাপ শুরু করেছেন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান কৃষ্ণকান্ত দে, উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সহকারী শিক্ষক সৈয়দ মাহাবুব আলম, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা আশিকুর রহমান রতন, আনিসুজ্জামান রকেট, জিয়াউর রহমান শিমুল এবং বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী উপজেলা জাতীয়তাবাদী মৎস্য দলের আহ্বায়ক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান তাইফুর রহমান কচি, উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আকবর মোল্লা, উপজেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক রফিক চোকদার। তবে আওয়ামী লীগের তালিকায় রয়েছেন ৬ জন ও বিএনপির ৩ জন।

মাহিলাড়া ইউনিয়নে দলের প্রার্থিতা পেতে লবিং তদবিরে ছিলেন, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান সৈকত গুহ পিকলু, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন কবিরাজ, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আবুল কালাম শিকদার, আওয়ামী লীগের নেতা শহিদ সরদার, বুলবুল হাওলাদার এবং বিএনপি থেকে উপজেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার সাজ্জাদ তোতা, ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল রব হাওলাদার, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আবু জাফর। এ ইউনিয়নে এদের মধ্য থেকে আওয়ামী লীগের তালিকায় ৮ জন ও বিএনপির তালিকায় ৩ জন রয়েছেন।

বাটাজোর ইউনিয়নে মনোনয়নের জন্য দৌঁড়ঝাপ করেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুর রব হাওলাদার, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মজিবুর রহমান মোল্লা, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের যুগ্ম আহ্বায়ক উৎপল চক্রবর্তী, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক রেজাউল করিম হাওলাদার এবং বিএনপি থেকে ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান আকতার হোসেন বাবুল, উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মো. মাসুদ প্যাদাসহ ৪ জন। এদের মধ্যে আওয়ামী লীগের তালিকায় ৬ জন ও বিএনপির তালিকায় ৩ জন রয়েছেন।

নলচিড়া ইউনিয়নে দলের মনোনয়ন পেতে দৌঁড়ঝাপ করছেন, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম হাফিজ মৃধা, ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি শাহজাহান কবির, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক জামাল খন্দকার, খোকন মল্লিক এবং বিএনপি থেকে মনোনয়ন প্রত্যার্শী উপজেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সেকান্দার মৃধা, উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আবু বক্কর গাজী, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফুয়াত হোসেন এনি। এদের মধ্যে আওয়ামী লীগের তালিকায় ৪ জন ও বিএনপির মনোনয়নের তালিকায় রয়েছেন ৩ জন।

শরিকল ইউনিয়নে দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মেজবাহউদ্দিন আকন, আওয়ামী লীগের নেতা সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মান্নান মৃধা, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন সেন্টু, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সুভাষ হালদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা শাহআলম মঞ্জু, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নাজিমউদ্দিন টিপু, আওয়ামী লীগের নেতা ফারুক হোসেন মোল্লা এবং বিএনপি থেকে উপজেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান মনজুর হাসান মিলন, উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য জাহাঙ্গীর মৃধা, বিএনপি নেতা ইমাম হোসেন মৃধা, জাহাঙ্গীর গোমস্তা। তবে আওয়ামী লীগের তালিকায় ৮ জন ও বিএনপির মনোনয়নের তালিকায় রয়েছেন ৩ জন।

আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে, দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করতে জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দ সোমবার বিকেলে আগৈলঝাড়ার সেরাল গ্রামে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ-এমপির বাসভবনে মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বিএনপির দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের বিএনপির নেতৃবৃন্দরা সোমবার বিকেলে দলীয় প্রার্থী যাচাই বাছাই প্রক্রিয়া কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। ইউনিয়ন বিএনপির নেতৃবৃন্দরা প্রার্থী চূড়ান্ত করে উপজেলা বিএনপির কমিটির কাছে জমা দিবে। ওই তালিকা নিয়ে জেলা ও উপজেলা বিএনপির মনোনয়ন বোর্ড কেন্দ্রে পাঠাবে।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...

Leave a Reply