গৌরনদী সংবাদ

চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে অবরুদ্ধ করে রেখেছে প্রভাবশালী এক মাদ্রাসা শিক্ষক

এক বীর মুক্তিযোদ্ধার পৈত্রিক সম্পত্তি দখল করে উৎখাতের জন্য গত ১০দিন থেকে বাড়ির একমাত্র রাস্তা বন্ধ করে ৫টি পরিবারকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে প্রভাবশালী এক মাদ্রাসা শিক্ষক ও তার ভাড়াটিয়া লোকজনে।

ঘটনাটি বরিশালের গৌরনদী পৌর সদরের চরগাধাতলী মহল্লার। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দিয়েও কোন সুফল মেলেনি। উল্টো মুক্তিযোদ্ধা ও তার পরিবারের সদস্যদের প্রতিনিয়ত প্রভাবশালীরা বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতিসহ প্রাণনাশের হুমকি অব্যাহত রেখেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ওই মহল্লার মৃত আনসার উদ্দিন সরদারের পুত্র দরিদ্র ও অসহায় বীর মুক্তিযোদ্ধা ইয়াসিন সরদার অভিযোগ করেন, স্থানীয় কতিপয় প্রভাবশালী ভূমিদস্যুরা জালজালিয়াতির মাধ্যমে তার পৈত্রিক সম্পত্তি দখলের জন্য দীর্ঘদিন থেকে নানা ষড়যন্ত্র করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় ভূমিদস্যুরা সংশ্লিষ্ট অফিসের কতিপয় অসাধু কর্মকর্তাকে ম্যানেজ করে মৌজার নকশা জালিয়াতির মাধ্যমে তাদের চরগাধাতলী মৌজার সাড়ে ১৭ শতক সম্পত্তি কর্তন করে পাশ্ববর্তী তিখাসার মৌজায় অর্ন্তভূক্ত করেন।

এনিয়ে তিনি আদালতে মামলা দায়ের করে ওই সম্পত্তির ওপর স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করান। অভিযোগে আরো জানা গেছে, ভূমিদস্যুরা স্থানীয় ক্ষমতাসীন দলের কয়েকজন প্রভাবশালীর সহায়তায় জালজালিয়াতির মাধ্যমে ভূয়া কাগজপত্র তৈরি করে অতিগোপনে ওই সম্পত্তি পৌর এলাকার দিয়াশুর বাংলাবাজার মাদ্রাসার শিক্ষক ও বিল্বগ্রামের বাসিন্দা জাহাঙ্গীর কাজীর কাছে বিক্রি করেন।

মুক্তিযোদ্ধার পুত্র পত্রিকা বিক্রেতা (হকার) ইব্রাহীম সরদার অভিযোগ করেন, প্রভাবশালী মাদ্রাসা শিক্ষক ও তার ভাড়াটিয়া লোকজনে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে সম্প্রতি তাদের সম্পত্তি দখল করে জোরপূর্বক পাকা দেয়াল নির্মান ও বাড়ি থেকে বের হওয়ার একমাত্র রাস্তাটি বন্ধ করে দিয়েছেন। এসময় তাদের বাঁধা দিতে গেলে তাকে ও তার পরিবারের সদস্যদের বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি, প্রাণনাশসহ ও বাড়ি থেকে উৎখাতের হুমকি দেয়া হয়। এ ঘটনায় পর্যায়ক্রমে থানায় আটটি লিখিত অভিযোগ ও সাধারন ডায়েরী করা হলেও রহস্যজনক কারনে কোন সুফল মেলেনি। নিরুপায় হয়ে অসহায় মুক্তিযোদ্ধা ইয়াসিন সরদার প্রভাবশালী ভূমিদস্যুদের হাত থেকে পৈত্রিক সম্পত্তি ফেরত পেতে প্রধানমন্ত্রী, ভূমি মন্ত্রী, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী ও স্থানীয় সংসদ সদস্যর আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মাদ্রাসা শিক্ষক জাহাঙ্গীর কাজী বলেন, আমার ক্রয়করা সম্পত্তিতে আমি দেয়াল নির্মান করেছি, তাতে কার রাস্তা বন্ধ হলো কিনা হলো তা আমার দেখার বিষয় নয়।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...