গৌরনদী সংবাদ

হোসনাবাদে দোকানঘর ছেড়ে দিতে বলার জের, হামলায় আহত-২ গ্রেফতার-১

ছয় মাসের ভাড়ার টাকা না দেয়ার কারনে ভাড়াটিয়াকে দোকান ঘর  ছেড়ে দিতে বলায় শুক্রবার রাতে বরিশাালের গৌরনদী উপজেলার হোসনাবাদের সাহেবের চর লঞ্চঘাট বাজারের এক দোকানদার, তার স্বজন ও সহযোগীরা হামলা চালিয়ে দোকান ঘরের মালিক ও তার পুত্রকে পিটিয়ে আহত করেছে।

পুলিশ হামলাকারী দোকানদারকে গ্রেফতার করেছে। এ ঘটনায় এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে বাজার এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী, আহত দোকান ঘরের মালিক, পুলিশ ও বাজার কমিটির নেতৃবৃন্দ সুত্রে জানাগেছে, ওই বাজারের একটি দোকান ঘরের মালিক সাহেদ আলী মাতুব্বরের কাছ থেকে গত এক বছর পূর্বে তার দোকান ঘরটি ভাড়া নিয়ে মাইক সার্ভিসের ব্যবসা শুরু করে একই এলাকার মৃত ছত্তার প্যাদার পুত্র নয়ন প্যাদা (২৮)। গত ৬ মাস যাবত নয়ন প্যাদা দোকান ঘরের মালিক সাহেদ আলী মাতুব্বরকে ভাড়ার টাকা দিচ্ছেনা। এ নিয়ে বিরোধের এক পর্যায়ে দোকান ঘরের মালিক সাহেদ আলী মাতুব্বর ও তার পূত্র জাহাঙ্গীর মাতুব্বর শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ওই বাজারে গিয়ে নয়নকে দোকান ঘরটি ছেড়ে দিতে বলেন। এতে নয়ন উত্তেজিত হয়ে তার স্বজন ও সজযোগীদের খবর দিয়ে এনে সাহেদ আলী মাতুব্বর ও তার পূত্র জাহাঙ্গীর মাতুব্বরের উপর অতর্কিতে হামলা চালিয়ে তাদেরকে পিটিয়ে আহত করে। খবর পেয়ে গৌরনদী থানা পুলিশ ঘটনা স্থলে পৌছে নয়ন প্যাদাকে গ্রেফতার করে।

গৌরনদী থানার ওসি মোঃ আবুল কালাম জানান, এ ঘটনায় সাহেদ আলী মাতুব্বর বাদি হয়ে নয়ন প্যাদাসহ ৮ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাতনামা আরো ১০/১২ জনকে আসামী করে শুক্রবার গভীর রাতে গৌরনদী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। গ্রেফতারকৃত নয়ন প্যাদাকে পুলিশ শনিবার সকালে বরিশাল আদালতে সোপর্দ করেছে। এ ঘটনায় সৃষ্ট পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে বাজার এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

আরও সংবাদ...

Back to top button