এবার গৌরনদীতে নলকূপে মল ঢেলে শত্রুতা

বাকেরগঞ্জে ইমামের মাথায় মল ঢেলে লাঞ্চিতর কয়েক দিন পর এবার নলকূপে মল ঢেলে শত্রুতা করার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে।

ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহস্পতিবার রাতে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার ২ নং বার্থী ইউনিয়নের নন্দনপুট্রি গ্রামে।

জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে এ ঘটনার পর আজ শনিবার (১৯ মে) সকালে স্থানীয় এক সালিস বৈঠকে প্রতিপক্ষ হাসমত আলীর মুন্সীর পুত্ররা দোষ স্বীকার করে নতুন নলকুপ স্থাপন করে দেয়ার মৌখিক মুজলেকা দিয়েছে।

সালিস বৈঠক ও এলাকাবসি সুত্রে জানা গেছে, নন্দনপুট্রি গ্রামের মৃত রিয়াজ উদ্দিন সরদারের পুত্র মোঃ জয়নাল আবেদ্দীন সরদারের সাথে প্রতিবেশী হাসমত আলীর মুন্সীর পুত্র কামাল মুন্সী, জামাল মুন্সী ও রুবেল মুন্সীর সাথে দীর্ঘ দিন যাবত জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে।

মোঃ জয়নাল আবেদ্দীন সরদার অভিযোগ করেন, বৃহস্পতিবার রাতে কামাল মুন্সী, জামাল মুন্সী ও রুবেল মুন্সী তার বাড়ির ব্যবহৃত গভীর নলকুপের মধ্যে উপর দিয়ে পায়খানা ঢেলে দেয়। প্রথম রমজানের সেহরী খাওয়ার জন্য তার কন্যা আইরিন সুলতানা পানি আনতে গেলে নলকুপের উপরে ও মধ্যে পায়খানা দেখতে পায়। পরবর্তীতে প্রতিবেশীদের ডেকে বিষয়টি দেখানো হয়।

জয়নাল আবেদ্দীন সরদার আরো অভিযোগ করেন, এর আগে একাধিকবার কামাল মুন্সী, জামাল মুন্সী ও রুবেল মুন্সীর ভাড়াটিয়া একই গ্রামের শাহ আলম ঘরামীর পুত্র হাসান ঘরামীকে দিয়ে জানলার ফাক দিয়ে তার ঘরের বিছানায় মল ছিটিয়ে দেয়। যা হাসানকে একবার হাতেনাতে ধরে ফেলা হয়।

সেই সুত্র ধরে ঘটনার পরের দিন শুক্রবার সকালে হাসানকে জিজ্ঞাসা করলে সে নলকুপে মল দেয়ার ব্যাপারে কামাল মুন্সী, জামাল মুন্সী ও রুবেল মুন্সীর মরামর্শে তাদের ছেলেরা এ কাজ করেছে।

এ নিয়ে শনিবার জয়নালের বাড়িতে এক সালিস বৈঠক বসে।

সালিস বৈঠকে উপস্থিত ৬ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য গিয়াস উদ্দিন হাওলাদার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আঃ ছালাম সেরনিয়াবাত, বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ মজিদ সরদার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, কামাল মুন্সী, জামাল মুন্সী ও রুবেল মুন্সী কাজটি ভাল করেনি। তারা দোষ স্বীকার করায় ও নতুন নলকুপ আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে স্থাপন করে দিবে বলে স্বীকার করেছেন।