গৌরনদী সংবাদ
Trending

গৌরনদীতে ৩০ ডেঙ্গু রোগী সনাক্ত, একজনের মৃত্যু

সচেতন হোন আজই

বরিশাল জেলার গৌরনদীতে দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা। গত ৮ দিনে ৩০ জন ডেঙ্গু রোগী সনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে আলেয়া বেগম নামে এক বৃদ্ধা মৃত্যু বরণ করেছেন। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডেঙ্গু রোগীর চিকিৎসা ব্যবস্থা না থাকায় চিকিৎসা নিতে আসা রোগী ও স্বজনরা চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। গত দুই দিনে স্থানীয়ভাবে কয়েকজন রোগী আক্রান্ত হওয়ায় জনমনে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। স্থানীয়রা দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডেঙ্গুর চিকিৎসার জন্য আলাদা ইউনিট চালুর দাবি জানিয়েছেন।

গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ মাহাবুব আলম মিজা জানান, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গত ৩০ জুলাই পার্শ্ববর্তী মুলাদী উপজেলার কাচিচর গ্রামের বাসিন্দা সহকারী শিক্ষিকা তানিয়া আক্তার প্রথম ডেঙ্গু রোগী হিসেবে সনাক্ত হয়। ওই রাতেই পৌরসভার আশোকাঠী মহল্লার আলেয়া বেগম নামে এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়। তার পর থেকেই ডেঙ্গু রাগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়তে থাকে। গত এক সপ্তাহে সরকারি হিসেবে ২৬ জন ডেঙ্গু রোগী সনাক্ত হলেও বেসরকারি ভাবে এর সংখ্যা রয়েছে ৩০ জনেরও অধিক। তার মধ্যে ঢাকা থেকে আক্রান্ত হয়ে এসেছেন অনেকে।

সোম ও মঙ্গলবার স্থানীয়ভাবে দুইজন ডেঙ্গু আক্রান্ত হওয়ার তথ্য পাওয়া গেছে। এরা হলেন ২নং বার্থী ইউনিয়নের সংরক্ষিত ৩ নং ওয়ার্ডের নারী সদস্য মিনু বেগমের স্বামী ধুরিয়াইল গ্রামের আলাউদ্দিন হাওলাদার (৬০), কটকস্থল গ্রামের হীরা মাঝির পুত্র ইউসুফ মাঝি (৪)।

এসব আক্রান্ত রোগীর স্বজনরা জানান, ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত রোগীরা গত কয়েক বছরেও ঢাকা কিংবা অন্য শহরের যায়নি। তারা স্থানীয় ভাবে ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়েছে। স্থানীয়ভাবে ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হওয়ায় জনমনে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। জনমনে একটাই আতঙ্ক ডেঙ্গু বাহিত মশা সারাদেশে কিভাবে ছড়িয়ে পরলো।

কয়েকদিনের জ্বর নিয়ে চিকিৎসা নিতে আসা কান্ডপাশা গ্রামের হুমায়ন কবির (৩২) বলেন, বরিশাল-ঢাকা মাহসড়কের পাশে এ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেটি অবস্থিত হওয়ায় এ কমপ্লেক্সেটি জন গুরুত্বপূর্ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। কমপ্লেক্সে ডেঙ্গুর চিকিৎসা ব্যবস্থা না থাকায় আক্রান্ত রোগীদের বরিশাল শেরে-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করে। ফলে রোগী ও স্বজনদের চিকিৎসা নিতে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। দ্রুত ডেঙ্গুর চিকিৎসার জন্য আলাদা ইউনিট চালুর দাবি জানাই।

গৌরনদী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ জয়নাল আবেদিন বলেন, জায়গার সংকুলন ও জনবল সংকট থাকায় ডেঙ্গুর চিকিৎসার জন্য আলাদা ইউনিট চালু সম্ভব হচ্ছেনা। আমাদের স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যে সব ডেঙ্গু রোগী সনাক্ত হয় তাদের চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরে-ই-বাংলা মেডিকেল কেলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করি। এছাড়া আমাদের আর কিছু করার নেই।

আরও সংবাদ...

Back to top button