গৌরনদী সংবাদ

গৌরনদীতে সওজ’র জমি দখলে নেমেছেন আওয়ামীলীগ ও যুবদলের কতিপয় নেতা

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দায়িত্বহীনতার কারণে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়ক সংলগ্ন গৌরনদী পৌর এলাকার নিলখোলা ও হরিসেনা নামক এলাকায় সড়ক ও জনপথ বিভাগের জমি দখলের প্রতিযোগীতায় নেমেছেন কতিপয় আওয়ামীলীগ ও এক যুবলীগ নেতা। ইতিমধ্যে সেখানকার কয়েক কোটি টাকার সরকারী সম্পত্তি দখল হয়ে গেছে। কিন্তু এ ব্যাপারে বাধা দিচ্ছেনা কেউ।

সকালে গৌরনদীর টরকী বন্দর সংলগ্ন নিলখোলা (সুন্দরদী) এলাকা সরেজমিন ঘুরে দেখাগেছে, মহাসড়কের পাশ্ববর্তি সুন্দরদী খালটি ভরাট হয়েগেছে। সেখানে পাকা ওয়াল নির্মাণের পর অনেকগুলো প্লট তৈরী করে ভাগবাটোয়ারা করে নিয়েছেন প্রভাবশালীরা।

স্থানীয়দের সাথে আলাপ করে জানাগেছে, গৌরনদী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও প্রভাবশালী আওয়ামীলীগ নেতা ফরহাদ মুন্সি ও তার কতিপয় সহযোগী খালটি ভরাট করে কয়েক কোটি টাকার সরকারী সম্পত্তি দখল করেছেন।

অপরদিকে পৌর সদরের হরিসোনা নামক স্থানে যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান শ্যামল খলিফা সম্প্রতি সওজের জমি দখল করে পাকা দোকানঘর নির্মান করেছেন।

জানাগেছে, সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নিরবতার সুযোগে কোটি কোটি টাকার জমি জবর দখলের প্রতিযোগীতা চলছে। ফলে ক্রমেই বেহাত হয়ে যাচ্ছে সরকারী জমি।

স্থানীয়রা জানান, সংশ্লিষ্ট সওজ বিভাগের কতিপয় কর্মকর্তার সাথে আঁতাত করে ভূমিগ্রাসী একটি চক্র সরকারী জায়গা দখলে মেতে উঠেছেন। প্রভাবশালীরা এসব সম্পত্তি প্রভাব খাটিয়ে দখলে নেয়ার পর সময় বুঝে বিক্রি করে হাতিয়ে নিচ্ছেন লাখ লাখ টাকা।

সড়কের জমি দখলের ব্যাপারে বরিশাল সওজ বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী শিশির কুমার বড়ালের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, নিলখোলা ও হরিসোনায় কার্য-সহকারীদের পাঠিয়ে সম্পত্তি দখলে বাধা দেয়া হয়েছিল। কিন্তু তাদের বাধা তারা মানেননি। এ ব্যাপারে দখলদারদের বিরুদ্ধে শিঘ্রই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

সংবাদ: জামাল উদ্দিন


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...

Leave a Reply