গৌরনদী সংবাদ

শীর্ষ সন্ত্রাসী মাদানী গ্রেফতারে গৌরনদীর পাঁচ গ্রামে স্বস্তি

থানা পুলিশের তালিকাভূক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী যুবলীগ ক্যাডার আল-মাদানী সিকদারকে গ্রেফতার করায় গত আড়াই মাস থেকে জেলার গৌরনদী উপজেলার পাঁচ গ্রামবাসী স্বস্তিতে বসবাস করছেন। সন্ত্রাসী আল-মাদানীকে গ্রেফতারের পর গত আড়াই মাস থেকে ওইসব এলাকায় এখন আর প্রতিদিনের মতো নেই সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি, দাঙ্গা-হাঙ্গামার কোন ঘটনা। তবে খুব শীঘ্রই জামিনে বেরিয়ে এসে অভিযোগকারীরে দেখে নেয়ার হুমকি অব্যাহত রেখেছে সন্ত্রাসী আল-মাদানির সহযোগীরা।

ভূক্তভোগী একাধিক সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার কটকস্থল গ্রামের মৃত হারুন সিকদারের পুত্র থানা পুলিশের তালিকাভূক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী ও যুবলীগ ক্যাডার আল-মাদানি সিকদারের বিরুদ্ধে কটকস্থলসহ পাশ্ববর্তী বেজগাতি, নন্দনপট্টি, বাউরগাতি ও রামনগর গ্রামে সন্ত্রাসী গ্রুপ তৈরি করে চাঁদাবাজি, মাদকবিক্রি, দাঙ্গা-হাঙ্গামাসহ একাধিক অপরাধমূলক কর্মকান্ডের অভিযোগ রয়েছে।

এছাড়াও সন্ত্রাসী আল-মাদানির বিরুদ্ধে বাউরগাতি গ্রামের এক যুবককে হত্যা ও নন্দপট্টি গ্রামের খাদেম সরদারকে কুপিয়ে হত্যাসহ বিভিন্ন অভিযোগে থানায় ১০টি মামলা রয়েছে।

পাঁচ গ্রামের কয়েক হাজার এলাকাবাসি দ্রুত বিচার আইনে সন্ত্রাসী আল-মাদানি সিকদারের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।

গৌরনদী থানার ওসি আবুল কালাম জানান, খাদেম সরদার হত্যা মামলায় সন্ত্রাসী আল-মাদানি সিকদারকে গত ১৮ অক্টোবর গ্রেফতার করা হয়। পরবর্তীতে একদিনের রিমান্ডে এনে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে আল-মাদানি পুলিশের কাছে চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ করেছে।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...

Leave a Reply