গৌরনদী সংবাদ

গলায় ফাঁস দিয়ে দাখিল পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা

সামনে দাখিল পরীক্ষা তাই পড়াশোনা কম করছে বিধায় মায়ের বকুনি খেয়ে বৃহস্পতিবার রাতে গৌরনদী উপজেলার মাগুরা-মাদারীপুর নেছারিয়া দাখিল মাদ্রাসার দাখিল পরীক্ষার্থী নুর-নাহার (১৬) গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। সে উপজেলার মাগুরা মহুর্জারপাড় গ্রামের হাজী মজিবুর রহমান হাওলাদারের কন্যা। খবর পেয়ে থানা পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থলে পৌছে ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শুক্রবার সকালে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছেন।

এ ব্যাপারে ছাত্রীর পিতা হাজী মজিবুর রহমান হাওলাদার বাদি হয়ে শুক্রবার সকালে গৌরনদী থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেন।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গৌরনদী মডেল থানার এসআই মোঃ শামচুউদ্দিন জানান, আগামী ১ ফেরুয়ারি দাখিল পরীক্ষা শুরু হবে। পরীক্ষা ঘনিয়ে আসলেও দাখিল পরীক্ষার্থী নুর নাহার পড়াশুনা করছে না। তাই তার মা শেফালী বেগম (৫৫) বৃহস্পতিবার সকালে তার মেয়ে নুর-নাহারকে গালমন্দ করেন। এতে সে অভিমান করে বৃহস্পতিবার রাত ১০টা থেকে ১১টার মধ্যে যে কোন সময় আধাপাকা ঘরে নুরনাহারের শয়ন কক্ষের আড়ার সাথে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দেয়। বাড়ির পাশে ওয়াজ মাহফিল শেষে নুর নাহারের ভাই হাফেজ হামজালাল হাওলাদার রাত সাড়ে ১১টার দিকে বাড়ি ফিরে নুরনাহারের কক্ষে বৈদ্যুতিক বাতি জ্বলতে দেখে। তখন সে জানানার ফাঁক দিয়ে তাকিয়ে বোন নুর-নাহারকে ঘরের আড়ার সাথে ঝুলতে দেখে ডাকচিৎকার দেয়। ডাকচিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে ঘরের ভেতর ঢুকে নুরনাহারকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসকের কাছে নেয়া হলে নুর- নাহারকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে এসআই শামচুউদ্দিন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌছে নুর-নাহারের মৃতদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। ময়নাতদন্তের জন্য ছাত্রীর লাশ শুক্রবার সকালে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন।

নুর-নাহার আত্মহত্যা করেছে বলে প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ ধারনা করেছে বলে জানান এসআই শামচুউদ্দিন।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...